বৃহস্পতিবার, ১০ অক্টোবর ২০১৯, ০৮:২৩ পূর্বাহ্ন

শীতলক্ষ্যায় মিলল নিখোঁজ নার্সের লাশ

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নার্স নাজনীন আক্তারের (২২) লাশ শীতলক্ষ্যা নদী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জ লঞ্চ ঘাট এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় অজ্ঞাত হিসেবে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। পরে পরিবারের লোকজন নাজনীনের লাশ শনাক্ত করেন।

নিহত নাজনীন আক্তার রূপগঞ্জের গোলাম শিকদার ওরফে গোল্লা শিকদারের মেয়ে। তবে এটি আত্মহত্যা না হত্যাকাণ্ড এ ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ইনচার্জ ডা. আবদুল কাদির জানান, নাজনীন ঈদের আগের দিন রোববার হাসপাতালে ডিউটি করে। এরপর বাড়ি যাওয়ার কথা বলে বিকাল ৪টায় হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে যায়। ঈদের পরের দিন তার ডিউটি ছিল। কিন্তু ঈদের দিন সকালে নাজনীনের বাবা -মা তার খোঁজে হাসপাতাল আসেন।

নাজনীনকে খুঁজে না পেয়ে বন্দর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন নাজনীনের বাবা। মঙ্গলবার শীতলক্ষ্যা নদী থেকে তার লাশ উদ্ধার হয়।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি রফিকুল ইসলাম জানান, স্বামীর সঙ্গে বনিবনা ছিল না বন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নার্স নাজনীনের। রোববার সারা রাত মোবাইল ফোনে যশোরের ঝিকরগাছায় থাকা স্বামী তারিকুল ইসলাম সঙ্গে কথা বলেন নাজনীন।

কথোপকথনের সময় নাজনীন স্বামীকে জানায়, মা বাবাকে ফোন করেছিলাম মাফ চাওয়ার জন্য, কিন্তু তাদের ফোনে পাচ্ছি না। মা বাবাকে মাফ করে দিতে বলো। আমি এখন বেরিয়ে যাচ্ছি। আমাকে খুঁজে পাবে না। আমাকে মাফ করে দিও।

নাজনীনের বাবা গোলাম শিকদার জানান, সোমবার থেকে নিখোঁজ ছিল নাজনীন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com