সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১২:১৯ পূর্বাহ্ন

নায়িকা না হতে পেরে বলিউড মডেলের আত্মহত্যা

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: বলিউডের নায়িকা হওয়ার স্বপ্ন দেখে অকালে প্রাণ হারালেন এক তরুণী। বহুতল ভবনের ছাদ থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। নিহত মডেলের নাম পার্ল পাঞ্জাবী। বয়স ২৩ বছর।

গেল বৃহস্পতিবার রাতে মুম্বাইয়ের ওশিওয়ারায় নিজেদের ফ্ল্যাট থেকে ঝাঁপিয়ে পড়ে আত্মহত্যা করেছেন তিনি।

ভারতীয় বেশ কয়েকটি গণমাধ্যম জানায়, পার্ল বলিউডের এক উঠতি অভিনেত্রী। সাত বছর ধরে বলিউডে চেষ্টা করার পরেও ছবিতে কাজ না পাওয়ায় মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবার রাতে মায়ের সঙ্গে ঝগড়ার পর আত্মহত্যার পথ বেছে নেন। এর আগেও দু’বার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিলেন।

ভবনের নিরাপত্তারক্ষী বিপিন ঠাকুর প্রথমে ঘটনাটি বুঝতে পারেন। ভারতীয় গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ১২টা ১৫ মিনিট থেকে ১২টা ৩০ মিনিটের দিকে ঘটনাটি ঘটে। পার্লের চারতলা বাসা থেকে চেঁচামেচির আওয়াজ আসছিল। এর কিছুক্ষণ পরেই উপর থেকে কিছু একটা নিচে পড়ার শব্দ হয়। তখনই পার্ল আত্মহত্যা করেন।

পার্লের বন্ধুমহলের দাবি, সিনেমায় নায়িকা হওয়ার ইচ্ছে নিয়ে ছোট থেকে মডেলিং করতেন পার্ল। গত সাত বছর ধরে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির ছোট-বড় সব রকমের প্রযোজক-পরিচালকদের সঙ্গে যোগাযোগ করে আসছেন। প্রচুর অডিশনও দিয়েছেন। কিন্তু কোথাও ভালো কাজের সুযোগ পাচ্ছিলেন না। নায়িকা হিসেবে কাজ দেওয়ার নাম করে তার সঙ্গে অনেকেই অশালীন আচরণ করেছেন। কুপ্রস্তাবও দিতেন। পার্ল কাজ পেতে এতটাই মরিয়া ছিলেন যে, শেষের দিকে তিনি বিপদ বুঝেও নানা পরিচালকের সঙ্গে রাতের শুটিং ফ্লোরে হাজির হয়েছেন। তবে সম্প্রতি এসব কিছু থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিচ্ছিলেন। এছাড়া এক মডেলের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর আরও মানসিকভাবে অবসাদগ্রস্ত হয়ে যান।

মুম্বাই পুলিশ জানায়, পার্লের মতো বহু উঠতি অভিনেতা-অভিনেত্রী হিন্দি সিনেমায় সুযোগ পাওয়ার চেষ্টা করেন। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ছেলেমেয়েরা বলিউডে কাজ করার স্বপ্ন নিয়ে মুম্বাই আসেন। কিন্তু বেশিরভাগের ভাগ্য সায় দেয় না।

অনেকেই প্রচুর পরিশ্রম করেন। তারপর অবসাদে ভুগতে শুরু করেন। তার জেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com