শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০৬:২৮ অপরাহ্ন

স্কুলছাত্রের মৃত্যুতে সেই যুগ্ম-সচিবের দোষ পায়নি তদন্ত কমিটি

নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের গঠিত তদন্ত টিম মাদারীপুর কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাট পরিদর্শন ও বিভিন্ন ব্যক্তির সঙ্গে কথা বলেন। ফাইল ছবি

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাটে স্কুলছাত্র তিতাস ঘোষের মৃত্যুর ঘটনায় ঘাটের ব্যবস্থাপক সালাম হোসেনসহ তিনজনকে দায়ী করে হাইকোর্টে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে।

অন্য দুইজন হলেন- ঘাটের প্রান্তিক সহকারী খোকন মিয়া ও উচ্চমান সহকারী ফিরোজ আলম।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নির্ধারিত সময়ের দুই ঘণ্টা দেরিতে ফেরি ছাড়া হয়। এ কারণে তিতাসের মৃত্যুর দায় এ তিনজন এড়াতে পারেন না। তবে যুগ্ম-সচিব আবদুস সবুর মণ্ডলের দোষ খুঁজে পায়নি তদন্ত কমিটি।

এ বিষয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যুগ্ম-সচিব আবদুস সবুর মণ্ডল জানতেন না যে ফেরিঘাটে মুমূর্ষু রোগী আছে। কোনো ব্যক্তি বিশেষের জন্য কোনোভাবেই ফেরি দেরি করে ছাড়া যাবে না বলে প্রতিবেদনে সুপারিশ করা হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. রেজাউল হাসানের নেতৃত্বে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি এ প্রতিবেদন দাখিল করে।

অপর দুই সদস্য হলেন- নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম-সচিব আ. সাত্তার শেখ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের নিরাপত্তা বিভাগের যুগ্ম-সচিব তোফায়েল ইসলাম।

বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন দাখিলের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার। বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ প্রতিবেদনের ওপর শুনানি হবে।

তদন্ত প্রতিবেদনের সুপারিশে বলা হয়েছে, লাশবাহী গাড়ি বা অ্যাম্বুলেন্সকে অগ্রাধিকার দিতে হবে প্রথমে। প্রতিটি ঘাটে ও ফেরিতে সিসি ক্যামেরা বসিয়ে গাড়ি পারাপার পর্যবেক্ষণ করতে হবে। ফেরিঘাট ও ফেরিতে কর্মরত সবার নামসহ নির্দিষ্ট পোশাক পরিধানের ব্যবস্থা করতে হবে। ঘাটে ও ফেরিতে গুরুত্বপূর্ণ ও বিভিন্ন জরুরি মোবাইল নম্বর প্রদর্শনের ব্যবস্থা করতে হবে।

গত ৩১ জুলাই কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাটে স্কুলছাত্র তিতাস ঘোষের মৃত্যুর ঘটনায় অতিরিক্ত সচিবের নিচে নন এমন পদমর্যাদার কর্মকর্তার নেতৃত্বে তদন্ত করার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে তিতাসের পরিবারকে কেন ৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন আদালত।

তিতাসের মৃত্যুর ঘটনায় ৩ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী জহির উদ্দিন লিমনের করা রিটের শুনানি নিয়ে আদালত এ রুল জারি করেন।

এদিকে নির্ধারিত তারিখে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল না হওয়ায় ২৮ আগস্ট হাইকোর্ট ফের নির্দেশ দেন।

নড়াইলের কালিয়া পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র তিতাস ঘোষ মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হলে তাকে খুলনার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির উদ্দেশে আইসিইউ সংবলিত অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করে রওনা দেন পরিবারের লোকজন। রাত ৮টার দিকে কাঁঠালবাড়ি ১ নম্বর ভিআইপি ফেরিঘাটে পৌঁছায় অ্যাম্বুলেন্সটি।

তবে এটুআই প্রকল্পে কর্মরত যুগ্ম-সচিব আবদুস সবুর মণ্ডল পিরোজপুর থেকে ঢাকা আসবেন বলে ওই ফেরিকে অপেক্ষা করতে ঘাট কর্তৃপক্ষকে বার্তা পাঠানো হয়। তিন ঘণ্টা পর সবুর মণ্ডল ঘাটে পৌঁছালে ওই ফেরি ছাড়ে। এ সময় অ্যাম্বুলেন্সটিও ফেরিতে ওঠার সুযোগ পায়। কিন্তু এরই মধ্যে মস্তিষ্কে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়ে ফেরিতেই মারা যায় তিতাস।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com