1. ahmedshuvo@gmail.com : admi2018 :
  2. mridubhashan@gmail.com : Mridubhashan .Com : Mridubhashan .Com

মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০৯:৪৭ অপরাহ্ন

ঘুমের সমস্যা থেকে হতে পারে এই মারাত্মক ব্যাধিগুলি!

জানেন কি, খাবার ছাড়া মানুষ ২ সপ্তাহ বেঁচে থাকতে পারে, কিন্তু ঘুম ছাড়া ১০ দিনের বেশি বাঁচা সম্ভব নয়। প্রয়োজনের তুলনায় ঘুম বেশি বা কম হলেই তা আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। বেশি ঘুমানো, কম ঘুমানো, অনিদ্রা, ঘুম পাতলা হওয়া এইসকল ঘুম সংক্রান্ত জটিলতার কারণে আমরা আক্রান্ত হই এমন সব মারাত্মক অসুখে যার সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না। এবার দেখে নেওয়া যাক ঘুম সংক্রান্ত জটিলতার কারণে আমাদের শরীরে কোন রোগগুলি বাসা বাঁধতে পারে।

এক্সপ্লোডিং হেড সিনড্রোম: গভীর ঘুমের মধ্যে হঠাৎ অস্বাভাবিক জোরে কোনও শব্দে জেগে উঠেছেন কখনও? অনেকেরই এই ধরণের সমস্যা রয়েছে। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষ ভাবেন আসলেই কোথাও শব্দ হয়েছে। কিন্তু এটি একটি ঘুম সংক্রান্ত ব্যাধি। এর নাম ‘এক্সপ্লোডিং হেড সিনড্রোম’। যে শব্দটির কারণে ঘুম ভেঙ্গে যায় সেটি আর কোথাও নয়, রোগীর মাথার ভেতরেই হয়ে থাকে। খুব অদ্ভুত এই রোগটি বেশি ঘুমানোর কারণে হয়ে থাকে।

স্লিপ প্যারালাইসিস: স্লিপ প্যারালাইসিস। এই রোগটিকে আমরা অনেকেই বলি ‘বোবায় ধরা’। ঘুমের সময় কোনও ভয়ের স্বপ্ন দেখে অদ্ভুত কিছু থেকে বাঁচার চেষ্টায় হাত-পা নাড়ানোর চেষ্টা করেন অনেকেই। কিন্তু কোনও ভাবেই শরীরটাকে নাড়ানো যায় না। এই সমস্যায় কম বেশি সকলেই পড়েছেন। কিন্তু কেউই বিষয়টিকে তেমন পাত্তা দেন না। কিন্তু এটিও আসলে একটি রোগ। অনিয়মিত ঘুমের সময়ের পরিবর্তন এবং অনিদ্রাজনিত কারণে এই রোগটি হয়।

দুঃস্বপ্ন দেখা: অনেকেই আছেন যাঁরা ঘুমের মধ্যে প্রায়ই দুঃস্বপ্ন দেখেন। এটি যে এক ধরণের রোগ তা জানেনই না অনেকেই! কিন্তু আসলেই ঘুমের মধ্যে দুঃস্বপ্ন দেখাও একটি ব্যাধি। মানসিক চাপ, অতিরিক্ত পরিশ্রম, অনিদ্রা বা না ঘুমানোর কারণে দুঃস্বপ্ন দেখেন অনেকেই।

প্যারাসমনিয়া: প্যারাসমনিয়া এক প্রকার ঘুম সম্পর্কিত ব্যাধি যা মানুষকে ঘুমের মধ্যে অস্বাভাবিক কাজ করতে বাধ্য করে। এই রোগের কারণে অনেক রকমের অপরাধ পর্যন্ত করে ফেলতে পারে মানুষ। আজ পর্যন্ত এই রোগের কারণ অনেক অপরাধ সংঘটিত হয়েছে। ঘুমের মধ্যে গাড়ি চালানো, অপরিচিত কারও বাড়িতে ঢুকে পড়া এমনকি হত্যার মতো গুরুতর অপরাধের সঙ্গেও অনেকে জড়িয়ে পড়েছেন প্যারাসমনিয়ার ফলে। অতিরিক্ত মানসিক চাপ, অনিদ্রার, বিশ্রামের অনিয়ম মারাত্মক পর্যায়ে চলে গেলে এই ব্যাধি শরীরে বাসা বাঁধতে পারে।-জিনিউজ


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com