শুক্রবার, ১৭ অগাস্ট ২০১৮, ০৭:৩৫ অপরাহ্ন

ব্যথামুক্ত স্বাভাবিক প্রসব কী, কীভাবে করা হয়?

প্রসবের সময় ব্যথা একটি স্বাভাবিক সমস্যা। তবে বর্তমানে ব্যথামুক্ত স্বাভাবিক প্রসব করা সম্ভব। ব্যথামুক্ত স্বাভাবিক প্রসবের বিষয়ে  কথা বলেছেন ডা. এ কে এম আখতারুজ্জামান।

ডা. এ কে এম আখতারুজ্জামান বর্তমানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যানেসথেসিয়া, আইসিইউ ও পেইন মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : ব্যথামুক্ত স্বাভাবিক প্রসব বলতে আমরা কী বুঝি?

উত্তর : দেখুন, যে প্রসব বেদনা, সেটি হবেই। অনেকে মনে করে ব্যথা না হলে প্রসব সম্ভব নয়। আসলে এটি ঠিক ধারণা নয়। কীভাবে প্রসব হতে পারে? একজন মায়ের ব্যথা উঠলে প্রসব হয়ে শিশুটি চলে আসে। তবে প্রসবের জন্য ব্যথা জরুরি বিষয় নয়। ব্যথার অনেক খারাপ দিক রয়েছে। আমাদের শরীরে যে গ্রন্থিগুলো রয়েছে, অটো ইমিউন যে গ্রন্থিগুলো রয়েছে, অনেক হরমোন বের হয়ে থাকে সেখান থেকে। এই সমস্ত হরমোন আমাদের শরীরের হৃৎপিণ্ড, ফুসফুস, কিডনিসহ সমস্ত অঙ্গে খারাপ প্রভাব ফেলে। এই জন্য ব্যথামুক্ত প্রসব একটি যুগোপযোগী প্রচারণা। চিকিৎসক হিসেবে এই জায়গায় আমাদের আগে আসা উচিত।

প্রশ্ন : কিসের মাধ্যমে আমরা প্রসবের এই ব্যথাটা কমাচ্ছি?

উত্তর : ব্যথামুক্ত প্রসবের জন্য কিছু পদ্ধতি ব্যবহার করতে পারি। এখনো ব্যথামুক্ত প্রসব করার চেষ্টা করি। মাকে প্যাথেডিন, ট্রামাডল দিই। তবে এগুলো দিয়ে সম্পূর্ণ ব্যথামুক্ত করা যায় না। এই সম্পূর্ণ ব্যথামুক্ত করার জন্য এখনকার যুগে এপিডোরাল অ্যানেসথেসিয়া দিয়ে থাকি।

প্রশ্ন : এপিডোরাল অ্যানেসথেসিয়া কী, কীভাবে এর প্রয়োগ করা হয়?

উত্তর : এপিডোরালের দুটো অংশ রয়েছে। একটি অংশ হলো, আমরা কোমরের তিন ও চার নম্বর অথবা চার ও পাঁচ নম্বর, লাম্বার ভার্টিব্রার মধ্যে সুই দিয়ে তার ভেতরে একটি ক্যাথেডার দিয়ে একটি নল দিয়ে দিই। এর ভেতর দিয়ে লোকাল অ্যানেসথেটিকস আমরা দিয়ে থাকি। শুধু তার যে এলাকাটা দরকার, নিচের অংশটিকে আমরা ব্যথামুক্ত রাখি। এটা সহজেই করা সম্ভব। ব্যথামুক্ত স্বাভাবিক প্রসব এখন আমাদের দেশে হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়, কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতাল এটি শুরু করেছে। অ্যানেসথেসিয়া বিভাগের আওতায় আমরা একে বিস্তার করছি।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com