সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৯:৪৩ অপরাহ্ন

রানওয়েতে নয়, সাগরে ছিটকে পড়ল যাত্রীবাহী বিমান

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: রানওয়েতে নয়, সাগরে নামল একটি যাত্রীবাহী বিমান। শুক্রবার সকালে মাইক্রোনেশিয়ার চিউয়াক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ‘এয়ার নিউগিনির’ ফ্লাইট এএনজি৭৩ রানওয়ে থেকে ১৬০ গজ দূরে নেমে পড়ে। খবর বিবিসি।

বিবিসিকে চিউয়াক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ম্যানেজার জিম্মি এমিলো জানান, বিমানটিতে ৩৫ যাত্রী ও ১২ ক্রু ছিলেন। তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের কারও আঘাত গুরুতর নয় বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, সাগরপাড়েই দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। হঠাৎ বিশাল একটা কিছু পানিতে আছড়ে পড়তে দেখেন।

খেয়াল করে দেখতেই যাত্রীদের আর্তনাদ শুনতে পান তিনি। ততক্ষণে বিমানটি ডুবতে শুরু করে দিয়েছে।

এভাবে পানিতে এত বড় বিমান ভাসতে দেখে কিছুক্ষণ কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়েছিলেন বলে জানান এ প্রত্যক্ষদর্শী।

ঠিক কি কারণে বিমানটি সাগরে নামল সে বিষয়ে এখনও নিশ্চিত কিছু জানা যায়নি।

বিমানবন্দরের ম্যানেজার জিম্মি এমিলোর বরাত দিয়ে রয়টার্স জানিয়েছে, বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে বিমানটি।

ছোট ছোট নৌকায় করে দ্রুত যাত্রীদের উদ্ধার করা হয়েছে। কোনো প্রাণহানি ঘটেনি। আহত কয়েকজনকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে বলে জানান চিউয়াক আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

বিমান কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যে একটি তদন্তকারী কমিশন গঠন করে তদন্ত শুরু করেছে। যান্ত্রিক গোলযোগ না অন্য কোনো কারণে বিমানটি সাগরে লুটিয়ে পড়ল তা খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা।

বিমানটি মাইক্রোনেশিয়ার ফোনপেই দ্বীপ থেকে পাপুয়া নিউগিনির রাজধানী পোর্ট মোরসবিতে যাচ্ছিল বলে জানিয়েছে চিউয়াক বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ।

এদিকে দুঘর্টনাকবলিত বিমানটির ছবি দ্রুত ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, সাগরের পানি প্রায় ডুবন্ত বিমান থেকে যাত্রীদের উদ্ধার করছে ছোট ছোট নৌকা।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com