রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮, ০৭:২৬ অপরাহ্ন

আ’লীগে যোগ দিতে হলে ১০ অক্টোবরের মধ্যে আসতে হবে: শামীম ওসমান

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সরকারদলীয় সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, আওয়ামী লীগে আসতে চাইলে ১০ অক্টোবরের মধ্যে আসতে হবে। ১১ তারিখের পরে কাউকে নেয়া হবে না।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ফতুল্লার ইসদাইর এলাকায় বাংলা ভবন কমিউনিটি সেন্টারে নেতাকর্মীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

সভায় এমপি শামীম ওসমানের হাতে ফুল দিয়ে বিএনপি থেকে পাঁচ জনপ্রতিনিধি আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন।

এরা হলেন- এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান ও ৮নং ওয়ার্ড সদস্য মো. আতাউর রহমান প্রধান, ৩নং ওয়ার্ড সদস্য সামসুল হক, ৪নং ওয়ার্ড সদস্য বাতেন তালুকদার, ৫নং ওয়ার্ড সদস্য মো. ইসলাম এবং ৬নং ওয়ার্ড সদস্য ও একই ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক নেছার উদ্দিন।

এ সময় তিনি বলেন, সব দলের মধ্যেই ভালোমন্দ রয়েছে। আমাদের ভালো মানুষ দরকার। ভালো মানুষরা যদি আমাদের দলে আসতে চায় তাহলে তাদেরকে সাদরে গ্রহণ করা হবে।

আগামী ২৭ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জের একেএম সামসুজ্জোহা স্টেডিয়ামে বিশাল সমাবেশ করার আমন্ত্রণ জানিয়ে নেতার্মীদের উদ্দেশে শামীম ওসমান বলেন, সামনে কঠিন সময় আসছে। অনেক খেলা হবে আমাদেরকে প্রস্তুত থাকতে হবে। আমাদেরকে জানান দিতে হবে আমরা দুর্বল না। এই জন্য আওয়ামী লীগের সাচ্চা নেতাকর্মীদের নিয়ে কাজ করতে চাই। ঘরে ঘরে মিটিং করতে চাই। প্রত্যেকটি এলাকায় কাজ করতে চাই। আপনারা আমাকে এক এক এলাকায় নিয়ে যাবেন।

তিনি আরও বলেন, সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ করে দেবেন। আর এই কাজটি ২১ অক্টোবরের মধ্যে সম্পন্ন করতে চাই। এরপর সংসদ বসবে। সেখানে থাকতে হবে। এরপর ২৭ অক্টোবর শনিবার বাংলাদেশকে জাগাতে চাই। এদিন সামসুজ্জোহা স্টেডিয়ামে বিকাল ৩টায় নারায়ণগঞ্জের ইতিহাসের সর্ববৃহৎ সমাবেশ করতে চাই।

সভায় উপস্থিত ছিলেন ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাইফ উল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন মিয়া, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সোহেল, সাবেক পৌর প্রশাসক মতিন প্রধান, কাউন্সিলর মতিউর রহমান মতি, সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সানি, ফতুল্লা থানা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ফরিদ আহমেদ লিটন, কুতুবপুরের যুবলীগ নেতা আব্দুল খালেক, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মীর হোসেন মীরুসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com