রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৩:০৭ অপরাহ্ন

উবার চালককে হত্যা, আটক ৩

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংঘটিত উবার চালক হেলাল উদ্দিন হত্যাকান্ডের তদন্তে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। র‍্যাব ১৪-এর ভৈরব ক্যাম্পের কোম্পানি অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রফিউদ্দীন মোহাম্মদ যোবায়ের এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, “গত বুধবার বিকালে রাজধানী ঢাকার পূর্ব নাখালপাড়ার বাসা থেকে অভিযুক্তদের গ্রেফতার করা হয়েছে”।

উল্লেখ্য, গত ২৮ সেপ্টেম্বর ব্রাক্ষণবাড়িয়া সদর উপজেলার মালিহাতি এলাকায় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পাশ থেকে গলাকাটা অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ব্যাপারে র‍্যাব কর্মকর্তা রফিউদ্দীনকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “র‍্যাব গোয়েন্দারা সন্ধানে নেমে জানতে পারেন নিহত হেলাল উদ্দিন (৩৫) ছিলেন উবার চালক। উবার থেকে তথ্য নিয়ে সন্দেহভাজনদের ওপর নজরদারি শুরু করা হয়। আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যার কথা স্বীকার করেছে। ছিনতাই করা গাড়িটি তারা বিজয় সরণি ফ্লাইভারের নিচে রাখে বলে জানিয়েছে। ইতোমধ্যেই গাড়িটি পরিত্যক্ত হিসেবে উদ্ধার করেছে পুলিশ”।

আটক তিনজনের মধ্যে দুইজন হলেন রাজধানীর পুর্ব নাখালপাড়ার শহিদুল ইসলামের ছেলে আবু কাউছার শান্ত (১৮) ও মো. রাশেদ আহমেদের ছেলে মো. শহীদ আফ্রিদি (১৮)। অন্যজনের বয়স ১৬ বছর।

আটককৃতদের জবানবন্দী থেকে জানা গেছে তারা চোরাই সিম কিনে উবারের গাড়িটি ভাড়া করে এবং ঢাকার মগবাজার থেকে হবিগঞ্জে অসুস্থ খালাকে দেখতে যাওয়ার নামে রওনা হয়। এরপর ঐ তিনজন হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ থানার কাটাখালি পৌঁছে চালকের মাথায় লোহার রড দিয়ে আঘাত করে। এর ফলে উবার চালক হেলাল লুটিয়ে পড়লে তাকে ছুরি দিয়ে গলা কেটে হত্যা করে তারা।

র‍্যাব কর্মকর্তা রফিউদ্দীন জানান, “তারা চোরাই গাড়ি সামলাতে না পেরে ফ্লাইভারের নিচে ফেলে রাখে।”

এছাড়াও আসামিদের কাছ থেকে গাড়ির চাবি উদ্ধার করা হয়েছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

সূত্র: বিডি নিউজ।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com