সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৪:২১ অপরাহ্ন

দিনটা বিষাদময়!

মু. আনোয়ার হোসেন রনি :: নিভৃতচারী প্রানের মানুষ জালালভাই,স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কন্ঠসৈনিক রঙ্গ ‘দা ( রঙ্গলালা দেব চৌধুরী), কোটি মানুষের প্রিয় শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু- সব কান্না -বিষর্জনের দিনে!

স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন,সিমিটার আন্দোলন,গণজাগরণ মঞ্চ,পরিবেশ আন্দোলন-কোথায় নেই জালালভাই।সবখানেই ছিলেন। মনে মননে, চিন্তা আর চেতনায় একজন নিরেট প্রগতিশীল শুদ্ধ মানুষ।যখন যেখানে যা প্রয়োজন,এগিয়ে এসেছেন মনের তাগিতে,নাম ছড়াতে নয়।

অসম্ভব গুণী মানুষ রঙ্গ ‘দা।দেশের ক্রান্তিকালে কন্ঠ যোদ্ধাদের সহযাত্রী ছিলেন ৭১ এ।ছিলেন বেতারের মূখ্য সংগীত প্রযোজক।উপস্থাপনায় যখন বেতারে যাত্রা শুরু করি তখন আমাদের সংগঠন “র‍্যাংক” এর নানা অনুষ্ঠানে ছায়ার মত সহযোগীতা করেছেন।কত স্মৃতি তাঁর সাথে।জানতামই না তিনি শেষ জীবন কাটাচ্ছেন কানাডায়।

ব্যান্ড সংগীতের ভক্ত হয়েছি যার গান শুনে।কোটি ভক্ত পাগলের মত ভালোবাসে যাকে,অকালে চলে যাবেন আইয়ুব বাচ্চু?তার সাথে ব্যক্তিগত পরিচয় নেই কিন্তু তাঁর এমন প্রস্থানে বুক কেপে ওঠে।কারন আইয়ুব বাচ্চুর গানগুলো কখন যে নিজের গান হয়ে ওঠে।

” ওই দূর আকাশের তারারে,বলে দেনা কোনটা আমার মা” – মনে হয় এ যেন আমার বুকের হাহাকার! কখন মিশে যাই তাঁর গানে,আবেগে হুহু করে ওঠে বুক।

ওপারে ভালো থেকো প্রিয় জালালভাই,রঙ্গ’দা,প্রিয় শিল্পী আইয়ুব বাচ্চু।

শ্রদ্ধা!


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com