রবিবার, ১৮ নভেম্বর ২০১৮, ০৩:০৯ অপরাহ্ন

ঢাকার আকাশে হঠাৎ মুখোমুখি দুই বিমান, অল্পের জন্য রক্ষা

মাঝআকাশে হঠাৎ মুখোমুখি হয়ে পড়ে ইন্ডিগোর দুটি বিমান। মুখোমুখি সংঘর্ষের কাছাকাছি ছিল বিমান দুটি। কিন্তু শেষ মুহূর্তে অল্পের জন্য সংঘর্ষ এড়ানো সম্ভব হয়েছে। ফলে প্রাণে রক্ষা পেয়েছে কয়েকশ যাত্রী। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

তবে আনন্দবাজার পত্রিকার খবরে এ ঘটনার জন্য ঢাকার এয়ার ট্র্যাফিক কন্ট্রোলকে (এটিসি) দায়ী করা হয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, বুধবার দুপুরে বাংলাদেশের আকাশসীমায় এ ঘটনা ঘটে। ভারতের গুয়াহাটি থেকে কলকাতা যাচ্ছিল ইন্ডিগোর একটি বিমান। ঢাকা এটিসি থেকে ওই বিমানের পাইলটকে নির্দেশ দেয়া হয় ৩৬ হাজার ফুট ওপর দিয়ে উড়তে।

এমন সময় ইন্ডিগোরই অন্য একটি বিমান চেন্নাই থেকে গুয়াহাটি যাচ্ছিল। ঢাকা এটিসির নির্দেশে সেই বিমানের পাইলট ৩৫ হাজার ফুট ওপর দিয়ে উড়ছিলেন।

কিন্তু হঠাৎ করেই ঢাকা এটিসি থেকে কলকাতাগামী বিমানের পাইলটকে ৩৫ হাজার ফুটে নেমে আসতে বলা হয়। নির্দেশ পেয়ে ওই বিমানের পাইলট নেমে আসেন ৩৫ হাজার ফুটে।

পরিস্থিতি খারাপ দেখে কলকাতার এটিসি থেকে ওই বিমানের পাইলটকে সতর্ক করা হয়। দুটি বিমান একই উচ্চতায় মুখোমুখি এগোচ্ছে বলে সতর্ক করা হয়।

ঘটনাটি বাংলাদেশের আকাশপথে বলে কলকাতা থেকে কোনো নির্দেশ দেয়া সম্ভব হয়নি। শুধুমাত্র সতর্ক করা হয়। ফলে বিমান দুটি দ্রুত একই উচ্চতায় কাছাকাছি হতে থাকে।

বিমান দুটি আর কিছুক্ষণ সোজা চলতে থাকলে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এমন সময় ট্র্যাফিক কলিশন অ্যাভয়ডেন্স সিস্টেমের (টিকাস) মাধ্যমে সংকেত যায় দুই বিমানের পাইলটদের ককপিটে।

মুহূর্তেই গুয়াহাটিগামী বিমানের পাইলট তার বিমানটি ১ হাজার ফুট নিচে নামিয়ে আনেন। দুই বিমানের উচ্চতার ফারাক হয়ে যাওয়ায় মুখোমুখি সংঘর্ষ এড়ানো সম্ভব হয়েছে।

তবে আনন্দবাজার পত্রিকার ওই খবরে বাংলাদেশের কোনো কর্তৃপক্ষের কোনো বক্তব্য উল্লেখ করা হয়নি।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com