শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮, ০৭:৪১ অপরাহ্ন

নয়াপল্টনে সংঘর্ষ: জামিন পেলেন মির্জা আব্বাস দম্পতি

মৃদুভাষণ ডেস্ক::রাজধানীর নয়াপল্টনে পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও সংঘর্ষের তিন মামলায় জামিন পেয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস।

রোববার দুপুরের পর হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ তাদেরকে আট সপ্তাহের আগাম জামিন দেন।

অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেনের জুনিয়র মাহবুবুর রহমান দুলাল যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সকালে জামিন নিতে মির্জা আব্বাস দম্পতি হাইকোর্টে আসেন।

প্রসঙ্গত, জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রমের মধ্যেই ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে গত বুধবার দুপুরে পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।

এ সময় পুলিশের দুটি গাড়ি পোড়ানো হয়, ভাঙচুর করা হয় অনেক গাড়ি।

সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপি ও পুলিশ পরস্পরকে দায়ী করেছে।

বিএনপি বলেছে, ‘সরকারের নির্দেশে’ পুলিশ বিনাউসকানিতে তাদের নেতাকর্মীদের ওপর ‘হামলা’ চালিয়েছে।

অন্যদিকে পুলিশ বলেছে, নির্বাচন সামনে রেখে ‘ইস্যু তৈরির লক্ষ্যে’ বিনাউসকানিতে বিএনপি কর্মীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এ ঘটনায় দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ বিএনপির নেতাকর্মীদের আসামি করে তিনটি মামলা করে পুলিশ।

এসব মামলায় অন্তত ৫০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নয়াপল্টনে সংঘর্ষ: জামিন পেলেন মির্জা আব্বাস দম্পতি
মৃদুভাষণ ডেস্ক::রাজধানীর নয়াপল্টনে পুলিশের গাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও সংঘর্ষের তিন মামলায় জামিন পেয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস ও তার স্ত্রী মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস।

রোববার দুপুরের পর হাইকোর্টের একটি বেঞ্চ তাদেরকে আট সপ্তাহের আগাম জামিন দেন।

অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেনের জুনিয়র মাহবুবুর রহমান দুলাল যুগান্তরকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সকালে জামিন নিতে মির্জা আব্বাস দম্পতি হাইকোর্টে আসেন।

প্রসঙ্গত, জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে মনোনয়ন ফরম বিক্রির কার্যক্রমের মধ্যেই ঢাকার নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে গত বুধবার দুপুরে পুলিশের সঙ্গে দলটির নেতাকর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়।

এ সময় পুলিশের দুটি গাড়ি পোড়ানো হয়, ভাঙচুর করা হয় অনেক গাড়ি।

সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপি ও পুলিশ পরস্পরকে দায়ী করেছে।

বিএনপি বলেছে, ‘সরকারের নির্দেশে’ পুলিশ বিনাউসকানিতে তাদের নেতাকর্মীদের ওপর ‘হামলা’ চালিয়েছে।

অন্যদিকে পুলিশ বলেছে, নির্বাচন সামনে রেখে ‘ইস্যু তৈরির লক্ষ্যে’ বিনাউসকানিতে বিএনপি কর্মীরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এ ঘটনায় দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ বিএনপির নেতাকর্মীদের আসামি করে তিনটি মামলা করে পুলিশ।

এসব মামলায় অন্তত ৫০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com