শুক্রবার, ১৭ মে ২০১৯, ০৬:৩১ অপরাহ্ন

সোহরাওয়ার্দীর আগুন ‘আমাদের জন্য একটা শিক্ষা’: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: দেশের সব হাসপাতালের ফায়ার ফাইটিং সিস্টেম আরও আধুনিকায়ন করার পাশাপাশি হাসপাতালের বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি পরীক্ষা করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক স্বপন।

সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড নিয়ে হালনাগাদ তথ্য জানাতে শুক্রবার গুলশানে নিজের বাসায় এক সংবাদ সম্মেলনে এসে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় মন্ত্রী বলেন, এটা আমাদের জন্য একটা শিক্ষা। এটা ওয়েক আপ কল। আমাদের অনেক হাসপাতাল পুরানো হয়ে গেছে। আমাদের ফায়ার ফাইটিং যে সিস্টেম আছে সেগুলোর আরও আধুনিকায়ন প্রয়োজন এবং বাংলাদেশের সব হাসপাতালে বৈদ্যুতিক যে তার বা যন্ত্রপাতি আছে, সেগুলোকে চেক করা দরকার।

তিনি বলেন, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু হয়েছে। দুটি ওয়ার্ড বাদে সব ওয়ার্ডে স্বাভাবিক চিকিৎসা কার্যক্রম চলছে।

মন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের বেশ কিছু হাসপাতাল আছে পুরনো, এগুলোর অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা আধুনিকায়ন করা প্রয়োজন। আমরা সব হাসপাতালের অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা পর্যালোচনা করে দেখব।

এদিকে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় সাত সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর, ফায়ার সার্ভিস, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, বিদ্যুৎ বিভাগ এবং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সমন্বয়ে এ কমিটি গঠন করা হয়েছে। তাদের তিন দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

প্রসঙ্গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নতুন ভবনের তৃতীয় তলায় শিশু ওয়ার্ডে আগুন দেখতে পেয়ে রোগী ও স্বজনরা চিৎকার শুরু করেন।

অগ্নিকাণ্ডের খবরে রোগী ও তাদের স্বজনরা হাসপাতালের ভেতর ছোটাছুটি শুরু করেন।

এতে সবার মাঝে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। অল্প সময়ের মধ্যেই পুরো হাসপাতাল ধোঁয়ায় আচ্ছন্ন হয়ে পড়ে।

তবে দ্রুততম সময়ের মধ্যে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, রোগীর স্বজন এবং ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা হাসপাতালে ভর্তি প্রায় ১২০০ রোগী বাইরে বের করে আনেন। তবে রোগী স্থানান্তরের সময় এক শিশুর মৃত্যু হয়।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com