শুক্রবার, ১৭ মে ২০১৯, ০৩:৩১ অপরাহ্ন

আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে তুরাগ তীরে মানুষের ঢল

আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে তুরাগ তীরে মানুষের ঢল। ছবি-সংগৃহিত

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বের শেষ দিনে আখেরি মোনাজাতে শরিক হতে টঙ্গীর তুরাগতীরে মানুষের ঢল নেমেছে।

মঙ্গলবার সকাল ১০টায় আখেরি মোনাজাত শুরু হওয়ার কথা। আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন দিল্লির নিজামউদ্দিন মারকাজের অন্যতম মুরব্বি হযরত মাওলানা শামীম।

মোনাজাতে বাংলাদেশসহ সারা দুনিয়ার মানুষের সুখ, শান্তি ও কল্যাণ কামনা করে দোয়া করা হবে।

এর মধ্য দিয়ে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম এবারের ৫ দিনের বিশ্ব ইজতেমা শেষ হচ্ছে।

আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে ভোর থেকেই লাখো মুসল্লি হেঁটে, ট্রেনে, ট্রাক-বাস-পিকআপসহ বিভিন্ন যানবাহনে করে ঢাকা ও এর আশপাশের অঞ্চল থেকে ইজতেমা ময়দানে সমবেত হয়েছেন।

ইজতেমাস্থলে মুসল্লিরা ইসলামের আমল, আকিদা ও দাওয়াত বিষয়ে দেশি-বিদেশি মুসল্লিদের বয়ান শুনছেন।

সোমবার আখেরি মোনাজাত হওয়ার কথা থাকলেও সাদপন্থীদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে একদিন বাড়ানো হয়। সোমবার বাদ ফজর থেকেই ইজতেমা ময়দানে শুরু হয় ধর্মীয় বয়ান।

বাদ ফজর বয়ান করেন দিল্লির হজরত মাওলানা মুরসালিন। বাংলায় তরজমা করে শোনান বাংলাদেশের মাওলানা আবদুল্লাহ মনসুর। জোহর থেকে মাগরিব পর্যন্ত তাবলিগ জামাতের শীর্ষ পর্যায়ের মুরব্বি দিল্লির হজরত মাওলানা শাহজাত, বাংলাদেশের মাওলানা সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম ও মাওলানা শওকত হোসাইন বয়ান করেন।

দ্বিতীয় এ ইজতেমা রোববার থেকে শুরু হয়েছে। ঘন কুয়াশা, কনকনে শীতের মধ্যেই তাবলিগ জামাতের শীর্ষ মুরব্বিদের গুরুত্বপূর্ণ বয়ান ও মুসল্লিদের নফল নামাজ, তাসবিহ তাহলিল, জিকির-আজগারের মধ্য দিয়ে সোমবার বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় দিন অতিবাহিত হয়েছে।

বিশ্ব তাবলিগ জামাতের আমির দিল্লির হজরত মাওলানা সাদের নির্দেশক্রমে তাবলিগ জামাতের ৩২ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল ইজতেমা ময়দানে রয়েছে। সোমবার দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন ইজতেমার এ পর্বের মুরব্বি মাওলানা আশরাফ আলী।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com