রবিবার, ২৩ জুন ২০১৯, ০৫:০৪ অপরাহ্ন

লিটনের ছক্কায় গুরুতর আহত মাঠকর্মী

আউট হয়ে সাজঘরে ফিরছেন ফিরছেন। ছবি: সংগৃহীত

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) দারুণ পারফরমেন্স দেখিয়ে যাচ্ছেন জাতীয় দলের ওপেনার লিটন দাস। নবম রাউন্ডে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাবের বিপক্ষে তার ৮৪ রানের ঝলমলে ইনিংস ছিল বেশ উপভোগ্য।

বিশ্বকাপের আগে ব্যাটকে আরও ঝালিয়ে নিতে আজ বিকেএসপিতে দশম রাউন্ডেও দুর্দান্ত শুরু করেছিলেন তিনি। তবে অনাকাঙ্খিত এক ঘটনায় ইনিংসকে আর লম্বা করতে পারেননি মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের এই ড্যাশিং ওপেনার।

তার একটি ছক্কা হাঁকানো বলে আহত হয়েছেন জুয়েল নামের এক মাঠকর্মী।

এদিন প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবের বাঁহাতি স্পিনার মনির হোসেনের একটি বল হাওয়ায় ওড়ান লিটন।

ডিপ মিড উইকেট দিয়ে বল তীব্র গতিতে উড়ে যেতে থাকে বাউন্ডারির দিকে। বলটি সীমানার বাইরে থাকা ছাতার নিচে বসে থাকা মাঠকর্মী জুয়েলের ঠোঁটে গিয়ে আঘাত হানে। এ ঘটনায় ব্যাট ফেলে দ্রুত আহত মাঠকর্মীর দিকে ছুটে যান লিটন। স্ট্রেচারে করে বিকেএসপি হাসপাতালে নেয়া হয় জুয়েলকে।

খেলা সাময়িক বন্ধ থেকে আবার শুরু হয়। তবে নিজের হাঁকানো ছক্কায় একজন মাঠকর্মী আহত হবার ঘটনায় নাড়া দেয় লিটনের মন। খেলায় মনযোগ হারিয়ে ফেলেন।

সে ওভারের তৃতীয় বলে আবারও বড় শট খেলতে গিয়ে মিডঅনে দাঁড়ানো নাহিদুল ইসলামের হাতে ক্যাচ তুলে সাজঘরে ফেরেন লিটন।

এদিকে লিটনের বলের আঘাতে থেতলে গেছে জুয়েলের ঠোঁটের বড় একটি অংশ। সেখানে সেলাই পড়েছে পাঁচটি। দাঁতও নড়বড়ে হয়ে গেছে কয়েকটি। বিকেএসপি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে সাভারের জিরানী বাজারে ডেন্টিস্টের কাছে নেয়া হয়েছে।

তবে ঘটনাস্থলের অন্যান্যরা বলছেন, ভাগ্যিস জুয়েলের মাথায় লাগেনি বলটি। তাহলে গুরুতর কিছু ঘটে যেতে পারত। এটাই এখন লিটনের জন্য সান্তনা।

সোমবারের সেই অনাকাঙ্খিত ঘটনার দিনে ৬ চার ও ১ ছয়ের মারে ৩৬ রানে আউট হন লিটন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com