মঙ্গলবার, ২৫ জুন ২০১৯, ০৯:২৭ অপরাহ্ন

মুসলিম ভোটারদের হুমকি দিলেন মানেকা গান্ধি

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: ভোটের প্রচারে গিয়ে মুসলিম ভোটারদের হুমকি দিয়েছেন বিজেপির উত্তরপ্রদেশের প্রার্থী মোদি সরকারের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পরিবার বিচ্ছিন্ন ‘গান্ধিবধূ’ মানেকা গান্ধি। মন্ত্রীর মিনিটতিনেকের ভাষণ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

শুক্রবার নির্বাচনী এলাকা সুলতানপুরের জনসভায় মুসলিম ভোটারদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘ভোট না দিলে চাকরি দেব না। কোনো কাজ নিয়ে গেলে করব না।’

ভোটারদের উদ্দেশ করে মানেকা গান্ধি বলেন, তাকে ভোট না দিলে তিনি হয়তো তাদের অনুরোধ রাখতে পারবেন না। তার কথায়, আমি ইতিমধ্যেই নির্বাচনে জিতে গিয়েছি এখন আপনারা কী করবেন সেটা আপনাদের ব্যাপার।

তিনি বলেন, ‘আমি জিততে চলেছি এটাই গুরুত্বপূর্ণ। মানুষের ভালোবাসা আর আশীর্বাদেই আমি জিতছি। কিন্তু যদি আমায় মুসলিমদের সমর্থন ছাড়া জিততে হয় তাহলে আমার খারাপ লাগবে। তখন মুসলমান ধর্মের কোনো মানুষ আমার কাছে এলে চাকরি দেব না।

মানেকা বলেন, কারণ আমার মনে হবে কাজ করে কী হবে? আমরা তো সবাই মহত্মা গান্ধীর সন্তান নই। আপনারা ভোট না দিলেও আমার জেতা আটকাবে না। আপনাদের ভোট না পেলেও আমরা জিতব। আমি এখন থেকেই নির্বাচনে জিতে গিয়েছি। আমাকে আপনাদের প্রয়োজন হবে। আর তাই এটাই আপনাদের সুযোগ।

তিনি বলেন, ভোটের পর যদি দেখা যায় এই বুথ থেকে আমি ৫০-১০০টা ভোট পেয়েছি তাহলে আলাদা কথা। তখন আমার কাছে কাজের জন্য আসবেন। আমি আমার দায়িত্ব এড়িয়ে যাই না। বিভাজনও করি না। আমি মানুষের দুঃখ-কষ্টের কথা ভাবি।

মানেকা গান্ধি এমনিতে পিলভিট থেকে জিতে সংসদ সদস্য হয়েছেন। এই সুলতানপুর আদতে তার ছেলে বরুণ গান্ধির কেন্দ্র। এবার মা ও ছেলের কেন্দ্র অদল-বদল হয়েছে। এর আগেও বিতর্ক সৃষ্টি করেছেন মানেকা।

তিনি বলেছেন, বিএসপি সাংসদ মায়াবতী টাকার বিনিময়ে প্রার্থী স্থির করেন। নির্বাচনে প্রার্থী করতে ১৫-২০ কোটি টাকা করে নেন মায়া।

মানেকা বলেন, সবাই জানে মায়া টিকিট বিলি করতে পয়সা নেন। তার দলের লোকেরা সেটা গর্ব করে বলেন। তার ৭৭টি বাড়ি আছে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com