বৃহস্পতিবার, ১৩ জুন ২০১৯, ০৯:০৯ অপরাহ্ন

নোয়াখালীতে ছাত্রী ধর্ষণের মামলায় আসামির স্বীকারোক্তি

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে স্কুলছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত আসামি আলমগীর হোসেন (৩০) থানায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। সোমবার নোয়াখালীর ৬ নম্বর আমলি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন তিনি। এর আগে রোববার স্কুলছাত্রীর মায়ের করা মামলার ভিত্তিতে আলমগীরকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম মোহাম্মদ সাইদীন নাহি সোমবার আলমগীরের জবানবন্দি রেকর্ড করেন। সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুস সামাদ আসামির জবানবন্দি দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আলমগীর ও তাঁর সহযোগী মো. রাসেল (২৮) মিলে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করার কথা স্বীকার করেছেন। পরে আদালত আলমগীরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, গত শনিবার রাত নয়টার দিকে শৌচাগারে যাওয়ার জন্য ঘর থেকে বের হয় অষ্টম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রী। এ সময় ওত পেতে থাকা আলমগীর ও রাসেল তাকে বাড়ির পেছনে ধানখেতে নিয়ে ধর্ষণ করেন। পরে খোঁজাখুঁজির একপর্যায়ে ওই ছাত্রীকে ধানখেতে পড়ে থাকতে দেখে পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সোনাইমুড়ী থানার ওসি আবদুস সামাদ প্রথম আলোকে বলেন, ধর্ষণের অভিযোগ পেয়েই তাঁরা স্কুলছাত্রীর চিকিৎসা এবং ডাক্তারি পরীক্ষার ব্যবস্থা করেন। ঘটনায় অভিযুক্ত প্রধান আসামি আলমগীরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাকি আসামিকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com