শনিবার, ১৮ মে ২০১৯, ০৬:০৯ পূর্বাহ্ন

২৪৮ রান করলেই ফাইনালে বাংলাদেশ

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মোস্তাফিজের গতিতে কুপোকাত ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট দল। বাংলাদেশের পেস আক্রমণের সামনে ২৪৭ রানেই গুটিয়ে গেল উইন্ডিজ। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনাল নিশ্চিত করতে হলে টাইগারদের ২৪৮ রান করতে হবে।

এর আগে প্রথম দল হিসেবে সিরিজের ফাইনাল নিশ্চিত করে জেসন হোল্ডারের নেতৃত্বাধীন ক্যারিবীয় দল।

কার্টারকে ফেরালেন মোস্তাফিজ

রোস্টন চেজের পর জনাথন কার্টারকে সাজঘরে ফেরালেন মোস্তাফিজুর রহমান। বোলিংয়ে এসেই দ্বিতীয় ওভারে রোস্টন চেজকে সাজঘরে ফেরান মোস্তাফিজুর রহমান। কাটার মাস্টারের বলে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দুর্দান্ত ক্যাচে পরিনত হয়ে সাজঘরে ফেরেন ২৯ বলে ১৯ রান করা রোস্টন চেজ।

নিজের চতুর্থ ওভারে নতুন ব্যাটসম্যান জনাথন কার্টারকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন দ্য ফিজ খ্যাত মোস্তাফিজ। সাজঘরে ফেরার আগে ১৪ বলে মাত্র ৪ রান করার সুযোগ পান জনাথন।

এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওয়েস্ট ইন্ডিজের সংগ্রহ ২৯ ওভারের খেলা শেষে ৪ উইকেটে ১১৩ রান। ৫২ রানে ব্যাট করছেন ওপেনার শাই হোপ।

মাশরাফির পর মিরাজের আঘাত

আগের ওভারে ড্যারেন ব্রাভোর ক্যাচ ফেলে দিয়ে হতাশায় মুষড়ে পড়েন মেহেদী হাসান মিরাজ। ঠিক পরের ওভারে বোলিংয়ে এসেই সেই ব্রাভোকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন তিনি। ৪ রানে লাইফ পেয়েও নিজের ইনিংসটা লম্বা করতে পারেননি ড্যারেন ব্রাভো। মিরাজের শিকারে পরিনত হওয়ার আগে মাত্র ৬ রান করার সুযোগ পান ব্রাভো।

সহজ ক্যাচ মিস করলেন মিরাজ

একটি সহজ ক্যাচ তালুবন্দি করতে ব্যর্থ মেহেদী হাসান মিরাজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ইনিংসের ৯.৩ ওভারে মাশরাফি বিন মুর্তজার বলে ক্যাচ তুলে দেন উইন্ডিজের তারকা ব্যাটসম্যান ড্যারেন ব্রাভো। ব্যক্তিগত ৪ রানে ক্যাচ তুলে দিয়ে মিরাজের কল্যাণে লাইফ পান এই ক্যারিবিয়ান।

মাশরাফির করা বলটি বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে শূন্যে তুলে দেন ব্রাভো। আকাশে ভাসমান বলটি তালুবন্দি করতে পারেননি পয়েন্টে ফিল্ডিং করা মিরাজ। তার হাত ফসকে বল পড়ে মাটিতে। তাতেই হতাশা টাইগার শিবিরে।

উইন্ডিজ শিবিরে প্রথম আঘাত মাশরাফির

ত্রিদেশীয় সিরিজে ইতিমধ্যে ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তাতে স্থান করে নেয়ার লক্ষ্যে সেই উইন্ডিজের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে মাশরাফি বাহিনী। সোমবার বাংলাদেশ সময় বিকাল পৌনে ৪টায় ডাবলিনের ম্যালাহাইডে শুরু হয় দুদলের লড়াই।

এতে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন উইন্ডিজ দলপতি জেসন হোল্ডার। ব্যাটিংয়ে শুরুটা দুরন্ত করেন দুই ওপেনার সুনিল আমব্রিস ও শাই হোপ। ঝড়ো গতিতে রান তুলতে থাকেন তারা। কামানটা একটু বেশি দাগাচ্ছিলেন আমব্রিস। তাকে ফিরিয়ে বাংলাদেশকে প্রথম সাফল্য এনে দেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। তবে এতে বোলারের যতটা না অবদান, তার চেয়ে বেশি ফিল্ডারের। স্লিপে সৌম্য সরকারের অনন্য ক্যাচে সাজঘরের পথ ধরে ক্যারিবীয় ওপেনার। ফেরার আগে ১৯ বলে ৪ চারে ২৩ রান করেন আমব্রিস।

এ ম্যাচে উইন্ডিজ একাদশে এসেছে একটি পরিবর্তন। শ্যানন গ্যাব্রিয়েলের জায়গায় ঢুকেছেন পেসার রেইমন রেইফার। বাংলাদেশ একাদশেও এসেছে একটি পরিবর্তন। এ ম্যাচের মধ্য দিয়ে ওয়ানডেতে অভিষেক হতে যাচ্ছে পেসার আবু জায়েদ রাহীর। ১৩৩তম টাইগার ক্রিকেটার হিসেবে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে অভিষেক হলো তার। আর ইনজুরিতে ছিটকে পড়েছেন পেস অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

টুর্নামেন্টে তিন ম্যাচ খেলে ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে উইন্ডিজ। আর এক ম্যাচ কম খেলে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে বাংলাদেশ। এ ম্যাচে জিতলেই ফাইনাল নিশ্চিত হয়ে যাবে টাইগারদের। কারণ তিন ম্যাচে মাত্র ২ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের তলানিতে আছে আয়ারল্যান্ড।

উইন্ডিজ একাদশ: সুনিল অ্যামব্রিস, শাই হোপ (উইকেটরক্ষক), ড্যারেন ব্রাভো, রোস্টন চেজ, জনাথন কার্টার, জেসন হোল্ডার (অধিনায়ক), ফ্যাবিয়ান এলেন, অ্যাশলে নার্স, কেমার রোচ, শেলডন কটরেল ও রেইমন রেইফার।

বাংলাদেশ একাদশ : তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, মাশরাফি বিন মুর্তজা (অধিনায়ক), আবু জায়েদ রাহী ও মোস্তাফিজুর রহমান।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com