মঙ্গলবার, ২৩ জুলাই ২০১৯, ১১:০০ অপরাহ্ন

যশোরে এইচআইভি পজেটিভ ১১৯ জন

স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় যশোরের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. হারুন অর রশিদ

ডেস্ক নিউজ :: এইআইভি এইডস ঝুঁকিতে থাকা সারা দেশের ২৩ জেলার মধ্যে অন্যতম যশোর জেলা। এই জেলায় এই পর্যন্ত ১১৯ জন এইচআইভি পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। আর এইডস রোগে মারা গেছে সাতজন।

স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এই তথ্য জানান যশোরের ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. হারুন অর রশিদ।

বৃহস্পতিবার শহরের ষষ্ঠীতলাপাড়ায় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা পিএসটিসি’র নিজস্ব কার্যালয়ে ‘সংযোগ প্রকল্পে’র উদ্যোগে মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

ডা. হারুন অর রশিদ আরও বলেন, সরকারি ব্যবস্থাপনায় এইচআইভি এইডস রোগের চিকিৎসা করা হয়। তবে সচেতনতামূলক কার্যক্রমে বিভিন্ন বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা কাজ করছে। বেনাপোল স্থলবন্দরের কারণে যশোর জেলায় এইডস ঝুঁকি বেশি।

শহরের দুটি পতিতাপল্লীতে কেউ এইচআইভি এইডস পজেটিভ না হলেও ভাসমান অনেকেই আক্রান্ত। তাদেরকে সচেতনতায় কাজ চলছে। এছাড়া শিশুরাও এইচআইভি এইডসে আক্রান্ত হয়েছে মা বাবার মাধ্যমে।

ডেপুটি সিভিল সার্জন বলেন, ভাসমান পতিতা, পথ শিশু, ক্ষুদ্র দোকানদার, পুরুষ যৌনকর্মী, সমকামী পুরুষদের নিরাপদ যৌনাচারে সচেতনতা বৃদ্ধিতে কাজ করছে সরকার। পাশাপাশি বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থাগুলোর নানা উদ্যোগ রয়েছে। নিরাপদ যৌনচারে সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে এইচআইভি এইডস বিস্তার রোধ সম্ভব।

সংযোগ প্রকল্পের জেলা সমন্বয়কারী সৈয়দা নূরে নাবিলা তাবাসসুম বলেন, যশোর সদর ও শার্শা উপজেলায় এইচআইভি এইডস সচেতনতায় প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। এই প্রকল্পের আওতায় ১৫-২৪ বছর বয়সী নারী ও পুরষকে নিরাপদ যৌনাচার সম্পর্কে সচেতন করা হয়। বয়ঃসন্ধিকালীন কিংবা যৌন রোগ সম্পর্কে চিহ্নিত করে সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়।

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সংযোগ প্রকল্পের ফিল্ড সুপারভাইজার উৎপল রায়। সভায় যশোর ও বেনাপোলে কর্মরত বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিক অংশ নেন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত মৃদুভাষণ - ২০১৪
Design & Developed BY ThemesBazar.Com