বিয়ের আগে কনের কেন পর্যাপ্ত ঘুম প্রয়োজন?

../news_img/57131mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::সামনেই বিয়ে। কেনাকাটা, নিমন্ত্রণ আর বাদ বাকি কাজও প্রায় শেষের পথে। হাজার ব্যস্ততা, সেইসঙ্গে মনে সামান্য ভয়। ঘুম প্রায় হচ্ছে না কোনওদিনই। বিয়ের আগে কনের যদি এমন অবস্থা হয়, তবে কিন্তু বিপদ। অপর্যাপ্ত ঘুমের ছাপ পড়বে চেহারায়। বিয়ের দিন সাজলেও চেহারার ক্লান্তি তা ঢেকে দেবে। তাই, জেনে নিন, বিয়ের আগে কেন ঘুমোনো প্রয়োজন-

১) যকৃৎ আমাদের শরীরের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। ঘুমোনোর সময় যকৃতে একরকম উৎসেচক তৈরি হয়, যা শরীরকে আর্দ্র রাখতে সাহায্য করে। আর পর্যাপ্ত ঘুম নাহলে শরীর শুষ্ক হয়ে যায়।

২) ঘুমের সময় আমাদের শরীর ত্বকের গঠন ও মেরামতির কাজ করে। ত্বককে করে তোলে প্রাণবন্ত। ঘুম কম হলে তাই সহজেই চেহারায় বয়সের ছাপ ফুটে ওঠে।

৩) মানসিক চাপ বা স্ট্রেস দূর করে ঘুম। অক্সিজেন, নাইট্রোজেন, ব্লাড সুগার ও হরমোনের মাত্রা পর্যাপ্ত ঘুমের মাধ্যমেই নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। বিয়ের আগে না ঘুমোলে ক্লান্ত হয়ে ওঠে শরীর। আর, শরীরকে করে তোলে অসুস্থ।

৪) শরীরে পানির পরিমাণ বজায় রাখতেও ঘুম জরুরী। পানির অভাবে ত্বক হয়ে ওঠে শুষ্ক। কোনও মেকআপই এই শুষ্কতা ঢাকতে পারে না। এজন্য বিয়ে আগে প্রতিদিন ঘুমোতে হবে।

৫) ঘুম কম হলে কমতে বা বাড়তে পারে ওজনও। সঠিক ওজন ধরে রাখতে পর্যাপ্ত ঘুম খুবই প্রয়োজন।

৬) ত্বকের ঔজ্জ্বল্য ধরে রাখতেও পর্যাপ্ত ঘুম প্রয়োজন। বিয়ের আগে ঘুমোতে হবে নিয়ম করে। নাহলে, চেহারায় ক্লান্তি ফুটে উঠবে।

৭) চুল ঝরে পড়া, চুলের রুক্ষতা বা তুলের যাবতীয় সমস্যার কারণ হতে পারে অপর্যাপ্ত ঘুম। বিয়ের সময় যদি এইসব সমস্যার মুখোমুখি হতে না চান, তবে, ভালো করে ঘুমোন।