দিল্লিতে লোডশেডিং হলেই জরিমানা

../news_img/60261 mrini.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক ::তীব্র গরমে লোডশেডিংয়ের যন্ত্রণা থেকে গ্রাহকদের মুক্তি দিতে মোক্ষম উপায় বের করেছেন ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লির মুখ্যমন্ত্রী তথা ভারতের আমআদমি পার্টির প্রধান অরবিন্দ কেজরিওয়াল। লোডশেডিং হলেই দিল্লির গ্রাহকদের জরিমানা দেবে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থাগুলো। এমনই অভিনব নির্দেশিকা জারি করেছে কেজরিওয়াল সরকার। 

নয়াদিল্লির  কেজরিওয়ালের সরকার এক বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছে, রাজধানী দিল্লির কোনো এলাকায় এক ঘণ্টার বেশি বিদ্যুৎ না থাকলে প্রতিটি গ্রাহককে পেনাল্টি বাবদ ৫০ রুপি করে দেবে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থাগুলো। দুই ঘণ্টা বিদ্যুৎ না থাকলে গ্রাহককে দিতে হবে ১০০ রুপি। সে হিসেবে যত ঘণ্টা বিদ্যুৎ না থাকবে, সেই মতো ঘণ্টাপিছু ৫০ রুপি করে গ্রাহককে জরিমানা দেবে বিদ্যুৎ সরবরাহ সংস্থাগুলো। 

কেজরিওয়াল সরকারের জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, রাজধানী দিল্লিতে যত বড় বিদ্যুৎ বিপর্যয়ই হোক না কেন, তা এক ঘণ্টার মধ্যে ঠিক করে ফেলতে হবে প্রতিটি বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থাগুলোকে।

কেজরিওয়াল সরকারের এই বিজ্ঞপ্তিতে দিল্লির রাজ্যপাল অনিল বাজাজ সম্মতি প্রদান করেছেন বলে জানা গেছে। ভারতের রাজধানী দিল্লিতে তিনটি বেসরকারি সংস্থা বিদ্যুৎ সরবরাহ করে থাকে। যার মধ্যে রয়েছে বিএসইএস যমুনা পাওয়ার লিমিটেড, বিএসইএস রাজধানী পাওয়ার লিমিটেড এবং টাটা পাওয়ার দিল্লি ডিস্ট্রিবিউশন লিমিটেড। কেজরিওয়াল সরকারের এই নির্দেশিকা দিল্লির প্রতিটি বিদ্যুৎ সরবরাহকারী সংস্থাগুলোর ওপরেই প্রযোজ্য। 

কেজরিওয়াল সরকারের বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, দিল্লির কোনো এলাকায় বিদ্যুৎ না থাকলে গ্রাহক যেন মোবাইলে বার্তা পৌঁছে দেয় সংশ্লিষ্ট বিদ্যুৎ সরবরাহ কোম্পানিকে। এক ঘণ্টার মধ্যে বিদ্যুৎ না এলে গ্রাহকের খাতায় জমা পড়বে ৫০ রুপি। জরিমানার অর্থ গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিলের সঙ্গে সমন্বয় করে দেওয়া হবে।