নবীগঞ্জে ফসলি জমিতে ইট ভাটা, পুড়ানো হচ্ছে কাঠ

../news_img/45724 mri nu.jpg

বিশেষ প্রতিনিধি :: নবীগঞ্জে সরকারি বিধি বিধান অমান্য করে বসতবাড়ীর আশে পাশে ও কৃষি জমিতে গড়ে উঠা ইট ভাটা গুলোতে আইন না মেনে কাঠ পুড়িয়ে ফলজ বৃক্ষ ধংস ও পরিবেশ দুষণ করছে। ফলে এলাকার জনস্বাস্থ্য বিশেষ করে শিশু ও কিশোররা হুমকির মুখে পড়েছে। প্রতিটি ইট ভাটার সাথে জড়িত রয়েছেন স্থানীয় প্রভাবশালী নেতারা।

জানা গেছে, নবীগঞ্জ উপজেলাসহ আশপাশে ইটভাটার সংখ্যা প্রায় ১৫ টি। এর মধ্যে অনেক গুলোরই বৈধ কাগজ পত্র ও পরিবেশ অধিদপ্তরের কোন অনুমোদনে জটিলতা রয়েছে বলে বিভিন্ন সূত্রে প্রকাশ। এসব পুরনো চিমনি পদ্ধতিতে ইটভাটাগুলোতে ইট পোড়ানোর কাজ চলে। অধিকাংশ ভাটার মালিক স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি হওয়ার কারনে গ্রামের বসত-বাড়ীর আশে পাশে ও কৃষি জমিতে অপরিকল্পিত ভাবে ভাটা গড়ে উঠলেও সাধারন মানুষ প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না। ইটভাটায় কয়লা পোড়ানোর আইনগত নির্দেশ থাকলেও সুযোগ পেলেই ভাটায় কাঠ পুড়িয়ে ইট তৈরী করা হচ্ছে। এতে ফলবান বৃক্ষ উজাড় হচ্ছে। দ্রুত হ্রাস পাচ্ছে মাটির উর্বরতা ও আবাদি জমির পরিমান। ভাটার চুল্লির চিমনি নির্ধারিত মাপের চেয়ে নিচু হওয়ায় ভাটার নির্গত বিষাক্ত ধোয়ার কারনে পার্শ্ববতী ফসলের ও জনজীবন মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ভাটার কর্মরত শ্রমিকরাও ধুলো ধোঁয়ার কারনে শ্বাসকষ্টসহ নানা রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। আবাদী জমি ইট পোড়ানোর কাজে ব্যবহার হওয়ায় জমির উর্বরতা শক্তি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। যা পুনরায় স্বাভাবিক চাষবাদের উপযোগি করতে প্রায় ১০/১২ বছর সময় লেগে যায়। ভাটার কালো ধোঁয়া নিকটবর্তী জমির ফসল ও ধানের অপুষ্ট শীষ নষ্ট করে দেয়। ভুমি উপরি ভাগের জীব বৈচিত্র বিনষ্ট হয়। ইট ভাটার জন্য দেশে প্রচলিত আইন থাকলেও নবীগঞ্জে তার কোন প্রয়োগ নেই বললেই চলে।

গতকাল ঢাকা সিলেট মহা সড়ক ঘেষা সৈয়দপুর বাজারের নিকটস্থ এক ফসলি জমি উপর নির্মানাধীন স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা ও সাবেক চেয়ারম্যান এর মালিকানাধীন একটি ইট ভাটায় গিয়ে দেখা যায় চারি পাশে রয়েছে একাধীক বাড়িঘর ও ফসলি জমি। ইটভাটার ধোঁয়ায় নষ্ট হচ্ছে সেখানকার পরিবেশ। এমনকি এ ধোয়ার কবলে পড়তে হয় মহাসড়কের এই স্থান দিয়ে আসা যাওয়া করা গাড়ির যাত্রীদের। এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে প্রায় ভাটাতেই কয়লার বদলে কাঠ পোড়ানো হয়।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাজিনা সারোয়ার বলেন, আমরা অচিরেই এব্যাপারে মোবাইল কোর্ট করবো। অবৈধ ইট ভাটার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবো।