বরের ‘নাগিন ড্যান্স’ দেখে ভেঙে গেল বিয়ে, অতঃপর...!

../news_img/51894mm.jpg


মৃদুভাষণ ডেস্ক::কোনও বিয়ে বাড়িতে নাচ-গানের আসর এখনকার দিনে অত্যন্ত সাধারণ ব্যাপার। কোনও কোনও পরিবারে তো এটা আবার রীতি হিসেবেও পালন করা হয়। কিন্তু বিয়ের মণ্ডপে এসে বরের ‘নাগিন ড্যান্স’-এর কারণে কনের বিয়ে ভেস্তে দেওয়ার ঘটনা কিন্তু সচরাচর দেখা যায় না। শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুরে।

জানা গেছে, বহুদিন আগে থেকেই ২৩ বছর বয়সি প্রিয়াঙ্কা ত্রিপাঠির সঙ্গে আগে থেকেই অনুভব মিশ্রের বিয়ের কথা পাকা হয়ে গিয়েছিল। দুই পরিবারই শাহজাহানপুরে থাকে। এমনকী তাদের মধ্যে উপহার আদান-প্রদান ও আচার-অনুষ্ঠানও সম্পন্ন হয়ে গিয়েছিল। বাকি ছিল কেবল বিয়ের অনুষ্ঠানটিই। কিন্তু সেদিনই ঘটে গেল বিপত্তি।

অনুষ্ঠানের দিন বর আসার পরেই নাগিন গান বাজতে থাকে মাইকে। তখনই সবাইকে অবাক করে নাচ শুরু করে দেন অনুভব মিশ্র। বন্ধুরাও টাকা ছড়িয়ে সমান তালে তাকে উৎসাহ দিতে থাকে। জানা যায়, ওই সময় অনুভব মদ্যপ অবস্থায় ছিল। নেশার ঘোরেই এই কাণ্ড করে বসে। এরপরেই আর সহ্য করতে পারেননি প্রিয়াঙ্কা। জানিয়ে দেন, মদ্যপ কাউকে বিয়ে করা তার পক্ষে অসম্ভব। কনের সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানায় তার বাড়ির লোক এবং আত্মীয় পরিজনেরা।

এরপর বরপক্ষের তরফে বিয়ের জন্য প্রিয়াঙ্কাকে প্রথমে অনুরোধ ও পড়ে শাসানো শুরু হয়। কিন্তু কোনও কিছুই প্রিয়াঙ্কার সিদ্ধান্তকে টলাতে পারেনি। সাবধানতার খাতিরে এরপরে পুলিশেও খবর দেওয়া হয়। শেষ পর্যন্ত নিরুপায় হয়ে ফিরে যেতে হয় বরপক্ষকে। এর পরদিন অন্য একটি ছেলেকে বিয়ে করে নেন প্রিয়াঙ্কা। গোটা ঘটনা জানাজানি হতেই অনেকে ২৩ বছর বয়সি প্রিয়াঙ্কার প্রশংসা করেছেন। তবে বরপক্ষের তরফ থেকে কোনও বিবৃতি পাওয়া যায়নি।