দুই বোনকে একই সঙ্গে বিয়ের প্রস্তাব: অতঃপর...

../news_img/51949mm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::২০১০ সাল থেকেই সম্পর্কে রয়েছে অ্যাশলে স্কস ও উইল সিয়াটন। এবার তাঁরা বিবাববন্ধনে আবদ্ধ হতে চায়। তাই একদিন সময়-সুযোগ দেখে অ্যাশলেকে প্রোপোজ করেই ফেলেন উইল।

দুই বোন, অ্যাশলে ও হানা স্কস। একেবারে অভিন্ন হৃদয়। কিন্তু, এক সময় অ্যাশলের হৃদয়ে স্থান করে নেয় উইল সিয়াটন। ২০১০ সাল থেকেই সম্পর্কে রয়েছে অ্যাশলে স্কস ও উইল সিয়াটন। এবার তারা বিবাববন্ধনে আবদ্ধ হতে চায়। তাই একদিন সময়-সুযোগ দেখে অ্যাশলেকে প্রোপোজ করেই ফেলে উইল। এবং, আ্যশলেকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার আগে, তার বোন হানার সামনেও এক প্রস্তাব রাখে উইল।

আশ্চর্য হওয়ার মতোই ব্যাপার! কিন্ত, সম্পূর্ণ ঘটনা জানলে মানুষ হিসেবে সম্মান করতেই হবে উইল ও অ্যাশলেকে। হানা স্কস ‘ডাউন সিনড্রোম’ ও ডায়বেটিসের রোগী। তাই, উইলের সঙ্গে প্রথম সাক্ষাতেই অ্যাশলে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছিল যে, তার সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করতে হলে, বোন হানাকেও মন থেকে মেনে নিতে হবে উইলকে। অ্যাশলের কথা এক বাক্যে মেনে নিয়েছিল উইল।

২০১০ সাল থেকে এখনও পর্যন্ত যতবারই অ্যাশলে-উইল ডেটিং-এ গিয়েছে, বেশিরভাগ সময়েই হানা তাদের সঙ্গে ছিল বলে জানিয়েছে অ্যাশলে। যার ফলে তারা তিনজন ‘বেস্ট ফ্রেন্ড’এ পরিবর্তীত হয়েছে। এক সংবাদ মাধ্যমকে এমন কথাই জানিয়েছে অ্যাশলে।

অ্যাশলেকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার আগের মুহূর্তে, হানাকে এক অদ্ভুত প্রস্তাব দেয় উইল। দুই বোনের ঠাকুমার আংটি দিয়ে তাকে প্রস্তাব দেয় ‘সারা জীবনের জন্য এক ভাল বন্ধু হয়ে থাকার’।

এরপরে, অ্যাশলেকে এনগেজমেন্ট রিং দিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দেয় উইল। অ্যাশলে সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছে যে, তার বিয়ের সময় হানা ও উইল বন্ধুত্বের ‘প্রমিস এক্সচেঞ্জ’ করবে। এবং বন্ধুত্বের সুরেই একটি ‘ডান্স শেয়ার’ করবে। অ্যাশলে ও উইলের নতুন জীবন এবং হানা ও উইলের বন্ধুত্বের জন্য রইল অনেক শুভেচ্ছা। সূত্র: এবেলা