বনানী ধর্ষণ : তরুণীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন

../news_img/53564 mri nu.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: জন্মদিনের অনুষ্ঠানে নিমন্ত্রণ দিয়ে ব্যবসায়ীপুত্র বাহাউদ্দীন ইভান (২৮) যে তরুণীকে বাসায় নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করেছিলেন তার ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ওই তরুনীকে রাজধানীর পুলিশের উইমেন ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড সাপোর্ট বিভাগ থেকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ঢামেক ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ সাংবাদিকদের জানান, ওই তরুণীকে আমরা পেয়েছি। তার পরীক্ষার জন্য আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। শিগগিরই এর প্রতিবেদন দেওয়া হবে।

তরুণীর ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঁচ সদস্যের একটি বোর্ড গঠন করা হয়েছে বলে জানান তিনি। বোর্ডে প্রধান হিসেবে তিনিই রয়েছেন। এ ছাড়া অন্যরা হলেন- ডা. প্রদীপ বিশ্বাস, ডা. কবির সোহেল, ডা. রেজওয়ানা শারমিন ও ডা. মমতাজ আরা।

ধর্ষণের আলামত পাওয়া যাবে কি না? এমন প্রশ্নের জবাবে সোহেল মাহমুদ বলেন, যেহেতু ভিকটিম ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে আমাদের কাছে এসেছেন সেহেতু ধর্ষণের আলামত পাওয়া যাবে বলে আশা করছি।

গত মঙ্গলবার রাতে জন্মদিনের পার্টির কথা বলে ওই তরুণীকে নিজ বাসায় নিয়ে যান ইভান। সেখানে নিয়ে ওই তরুণীকে ধর্ষণ করেন। বুধবার দুপুরে এ বিষয়ে ওই তরুণী বনানী থানায় একটি মামলা (নম্বর-৮) দায়ের করেন।

মামলায় তিনি বলেন, জন্মদিনের অনুষ্ঠান ও বিয়ের আগে মায়ের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে তরুণীকে বাসায় যাওয়ার কথা বলে ইভান। ওই তরুণী যেতে না চাইলে তিনি তার মায়ের পরিচয় দিয়ে এক নারীর সঙ্গে আলাপ করিয়ে দেন।

এরপর ওই তরুণী রাত সাড়ে ১০টার দিকে ইভানের বাসায় যান। সেখানে গিয়ে দেখেন, বাসায় কেউ নেই। এরপরই সেখান থেকে তিনি চলে আসতে চান। কিন্তু ইভান তাকে জোর করে রেখে দেয়। রাতের খাবারের পর নেশাজাতীয় কিছু একটা খাওয়ানোর পর ইভান তাকে ধর্ষণ করেন। রাত সাড়ে ৩টার দিকে ওই তরুণীর ভ্যানিটি ব্যাগ রেখে বাসা থেকে বের করে দেওয়া হয়।