আশরাফুন্নেছা বেগম ইংলিশ ক্বারী এওয়ার্ডে লাইফ টাইম এচিভমেন্ট এওয়ার্ড লাভ

../news_img/54579 mri n.png

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: : একজন বাঙালী নারী হয়েও কয়েক দশক ধরে এখন পর্যন্ত নিজের মালিকানাধীন ইন্ডিয়ান রেষ্টুরেন্টে শেফ হিসেবে কাজ করে যাওয়া সত্তুরোর্ধ বাঙালী মহিলা শেফিল্ডের আশরাফুন্নেছা বেগম ইংলিশ ক্বারী এওয়ার্ডে লাইফ টাইম এচিভমেন্ট এওয়ার্ড লাভ করেছেন।

২১ আগষ্ট ম্যানচেষ্টারের পিকা ডেলী হোটেলের বলরুমে ঝাকঝমকপূর্ণ অনুষ্ঠানে ৭ম ইংলিশ ক্বারী এওয়ার্ডে তিন প্রজন্ম ধরে ক্বারী ব্যবসার সাথে সংশ্লিষ্ট থেকে ক্বারী শিল্পে অনবদ্য অবদান রাখার জন্য আশরাফুন্নেছা বেগমকে এই লাইফ টাইম এচিভমেন্ট এওয়ার্ড প্রদান করা হয়।

১৭ টি ক্যাটাগরিতে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে ইংলিশ ক্বারী এওয়ার্ড প্রদান করা হলেও সবচেয়ে আকর্ষনীয় লাইফ টাইম এচিভমেন্ট এওয়ার্ড পান শেফিল্ডির কার্টলারস স্পাইস রেষ্টুরেন্টের আশরাফুন্নেছা বেগম।র্দীঘদিন ধরে তিনি তাঁর স্বামী এওয়ার্ড বিজয়ী শেফ নইম উল্লাহের সাথে একই কিচেনে কাজ করে সমর্থন করে যাওয়া ছাড়াও নতুন নতুন নানা সুস্বাদু ও মনোরম খাবার তৈরী করে গ্রাহকদের তৃপ্তি দিয়ে আসছেন।

এওয়ার্ড প্রদানের সময় ইংলিশ ক্বারী এওয়ার্ডের পক্ষ থেকে বলা হয় একজন গৃহিনী হয়ে চার দশকেরও বেশী সময় আগে বৃটেনে পাড়ি জমানো আশরাফুন্নেছা বেগম কয়েক প্রজন্মকেই এই শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট করতে নিরলসভাবে কাজ করছেন এবং বৃদ্ধ বয়সে এখনো অত্যন্ত ব্যস্ত একটি রেষ্টুরেন্টে শেফের দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি পুরো কমিউনিটির জন্য একটি উদাহরণ উল্লেখ করে বলা হয় তাঁর এই এওয়ার্ড প্রাপ্তিতে অনেকেই এই শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট হতে আগ্রহী হবে।

এক ছেলে ও তিন মেয়ে‘র জননী আশরাফুন্নেছা বেগম এই এওয়ার্ড প্রাপ্তিতে তাঁর স্বামী নইম উল্লাহর অকৃত্রিম সহযোগিতার কথা উল্লেখ করে বলেন,স্বামী এবং সন্তানরা সমর্থন না করলে তার পক্ষে এই পর্যায়ে আসা সম্ভব ছিলো না।তিনি সকলের কাছে তাদের জন্য দোয়া ও কামনা করেছেন।

তাঁর দেশের বাড়ী মৌলভীবাজার জেলার শেরপুরে।আশরাফুন্নেছা বেগমের একমাত্র ছেলে আলম শাহ উল্লাহও তাদের সঙ্গেই শেফিল্ডির কার্টলারস স্পাইস রেষ্টুরেন্টে কাজ করছেন।