ঈদে স্পেশাল রেসিপি

../news_img/54990mn.jpg


   মৃদুভাষণ ডেস্ক::ঈদে আমাদের প্রত্যেকের ঘরে ঘরে মজাদার খাবার তৈরি করা হয়। প্রত্যকের ঘরে মিষ্টি জাতীয় খাবার অবশ্যই রান্না করা থাকে। এর মাঝে ফিরনী, সেমাই ও জর্দা অন্যতম। আপনার রান্নাও যেন সুস্বাদু হয় তাই আমাদের আজকের এই আয়োজন। কীভাবে ফিরনী ও জর্দা অনেক মজাদার করে রান্না করবেন আসুন জেনে নেয়া যাক
ফিরনীর রেসিপি-

উপকরণঃ
পোলাওয়ের চাল- ১/২ কাপ
তরল দুধ- ২ লিটার
কনডেন্সড মিল্ক- ১/২ টিন
দারচিনি- ৪-৫ টুকরা
এলাচ- ২-৩ টি,
কেওড়া জল- ১ টে চামচ
কিশমিশ- ২-৩ টে চামচ
পেস্তা বাদাম কুচি- ২-৩ টে চামচ
মাওয়া গুঁড়া- ৪ টে চামচ(ইচ্ছা)
চিনি- ১/২ কাপ (স্বাদমতো)
জাফরান- ১/৪ চা চামচ

প্রস্তুত প্রণালীঃ
পোলাওয়ের চাল ১ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে আধা বাটা করে দুধ দিয়ে জ্বাল দিন। চাল সেদ্ধ হলে চিনি, কনডেন্সড মিল্ক, দারচিনি, এলাচ দিয়ে জ্বাল করুন। কিছুক্ষণ পর কিশমিশ দিন। ঘন হয়ে গেলে কেওড়া জলের সাথে জাফরান গুলিয়ে ফিরনিতে দিয়ে নামিয়ে ফেলুন।
সারভিং ডিশে ঢেলে মাওয়া, পেস্তা বাদামের কুচি দিয়ে সাজিয়ে ঠান্ডা করে শাহি ফিরনি পরিবেশন করুন।
জর্দার রেসিপি-

উপকরনঃ
পোলাওয়ের চাল বা চিনি গুড়াঁ চাল – ২ কাপ
পানি- ১,১/২ কাপ
চিনি- ১ কাপ (বেশী মিষ্টি চাইলে বাড়াতে পারেন,তবে মিষ্টি বেশি হলে ভাত শক্ত হয়ে যায় ঠান্ডা হওয়ার পর।)
ঘি-৪ টেবিল চামচ।
দারুচিনি ২টি টুকরা ,লবঙ ৫-৬ টি,এলাচি ৫টি
কমলা বা মাল্টার রস ১ কাপ ।
নারিকেল ১/২ কাপ (ইচ্ছা)
লাল- কালো কিসমিস, কাঠ বাদাম, মোরোব্বা ২টেবিল চামচ করে।
জর্দার রঙ ১/২ চা চামচ
কমলার খোসা কুচি ১ টেবিল চামচ ।
ছয় কাপ পানি চাল সিদ্ধ করার জন্য।

প্রণালীঃ
প্রথমে চাল ধুয়ে ভিজায় রাখুন আধা ঘন্টা। এবার ছয় কাপ মত পানি,দুটি তেজপাতা, সামান্য লবণ, ১চা চামচ তেল ও জর্দার রঙ চাল চুলায় দিয়ে সিদ্ধ করে নিতে হবে। চাল বেশী সিদ্ধ বা শক্ত যেন না হয়। ৭৫-৮০ % হয়ে গেলে চালনিতে ঢেলে ছেকে নিন।পানি ভাল ভাবে ঝরিয়ে ট্রে তে বিছিয়ে রাখুন যেন বাতাসে পানিটা শুকিয়ে যায়।
এখন একটি প্যানে ঘি গরম করে মিড়িয়াম আচেঁ, আস্ত গরম মশলা গুলো দিন । ফুটে উঠলে কিশমিশ, বাদাম, নারিকেল ও মোরাব্বা দিয়ে নেড়ে চিনি, পানি ও কমলার রস দিয়ে নেড়ে দিন। বলক আসলে সিদ্ধ ভাত দিয়ে নেড়ে নেড়ে মিশান সব। এবার ঢেকেদিন চুলার আচঁ মিডিয়াম থেকে কমিয়ে দিন। ২০ মিনিট রান্না করুন।

২০মিনিট পর কমলার খোসা কুচি ও ১টেবিল চামচ ঘি দিয়ে হালকা নেড়ে মিশান। আবার ঢেকে ২০ মিনিট দমে রাখুন। ভাত একদম ফুটে গেলে নামিয়ে বাটিতে নিয়ে কিশমিশ, পেস্তা-বাদাম কুচি ,মাওয়া ও ছোট লাল -সাদা মিষ্টি দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।

মাওয়া তৈরিঃ গুঁড়া দুধ ১/২ কাপ, ২ টেবিল চামচ ঘি, ১ টেবিল চামচ চিনি দিয়ে হাতে মাখিয়ে মাইক্রোওভেনে ২৫-৩০ সেকেন্ড বেইক করে নিন। ঠান্ডা হলে ব্লেন্ড করে নিলেই ঝুরঝুরে মাওয়া তৈরী।