বর্জ্য অপসারণে ডিএসসিসির ১২ হাজার কর্মী মাঠে

../news_img/55222 mri iu.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সাড়ে ১২ হাজার কর্মী প্রস্তুত রয়েছে।

শনিবার দুপুর ২টা থেকে বর্জ্য অপসারণের কাজ শুরু করবেন তারা। ডিএসসিসির ৩৫০টি গাড়ি ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক যন্ত্রপাতিও বর্জ্য অপসারণের কাজে যুক্ত থাকবে।

নগরবাসী সহায়তা করলে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে বর্জ্য অপসারণ সম্ভব বলে জানিয়েছন ডিএসসিসির পরিচ্ছন্নকর্মীসহ সংশ্লিষ্টরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতি বছরের মতো এ বছর ডিএসসিসিতে প্রায় পৌনে ৩ লাখ পশু কোরবানি হবে। এতে প্রায় ১৮ থেকে ২০ হাজার টন কোরবানির বর্জ্য হতে পারে। এসব বর্জ্য দ্রুত অপসারণ দ্রুত করতে করপোরেশনের প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. শফিকুল আলেমের নেতৃত্বে একাধিক টিম তদারক করবে।

ডিএসিসির প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমডোর মো. শফিকুল আলেম বলেন, রাজধানীতে ৪ লাখ ৭৫ হাজার পশু কোরবানি হওয়ার কথা রয়েছে। এতে ১৮ হাজার টন বর্জ্য হতে পারে।

তিনি আরো বলেন, ঢাকা দক্ষিণ সিটিতে ৬২৫টি পশু কোরবানির স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে। পশু জবাইয়ের জন্য ঢাকা দক্ষিণে ৬২৫ জন এবং উত্তরে ৫৯২ জন ইমাম ও কসাই উপস্থিত থাকবেন। নগরবাসীকে রাস্তায় কিংবা খোলা জায়গায় কোরবানি না করার অনুরোধ জানান তিনি।

এ ব্যাপারে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, শনিবার দুপুর ২টা থেকে কোরবানির বর্জ্য অপসারণ শুরু হবে। এরপর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে নগরবাসীকে পরিষ্কার নগর উপহার দেওয়া হবে।

তিনি আরো বলেন, এরপরও যদি কোথাও কোরবানির বর্জ্য পড়ে থাকতে দেখা যায়, থাকলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন এলাকার জন্য ০৯৬১১০০০৯৯৯ হট লাইনে ফোন করার অনুরোধ জানান তিনি।