বানিয়াচংয়ে ছাত্রদল কর্মীর ছুরিকাঘাতে ছাত্রলীগ কর্মী আহত

../news_img/54733 mri nu i.jpg

ইমদাদুল হোসেন খান, বানিয়াচং (হবিগঞ্জ) থেকে :: হবিগঞ্জের বানিয়াচংয়ে ছাত্রলীগ কর্মী তুহিনকে ছুরিকাঘাত করেছে ছাত্রদল কর্মী ফয়সল। গুরুতর আহত তুহিনকে বানিয়াচং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। সে বানিয়াচং জনাব আলী ডিগ্রী কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্র ও যাত্রাপাশা গ্রামের জয়নাল মিয়ার পুত্র।

 এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা রিপন নামে আরেক ছাত্রদল কর্মীকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে। সে ঠাকুরাইন দিঘীর পাড় গ্রামের মৃত রিফাত উল্লার পুত্র। পুলিশ জানিয়েছে, রিপনের কাছে ইয়াবা পাওয়া গেছে। এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, কয়েকদিন পূর্বে জনাব আলী ডিগ্রী কলেজ গেইটের সামনে ডাব পাড়াকে কেন্দ্র করে প্রথম রেখ গ্রামের রবি হোসনের পুত্র ছাত্রদল কর্মী ফয়সল মিয়ার সাথে ছাত্রলীগ কর্মী তুহিনের বাকবিতন্ডাসহ ঝগড়া হয়। বিষয়টি এক সিনিয়র ছাত্রলীগ নেতা মিমাংসা করে দেন। কিন্তুু গতকাল সোমবার ফয়সল কলেজ গেইটের সামনে তুহিনকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। এসময় তার সহপাঠীরা তাকে দ্রুত বানিয়াচং স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখান থেকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

এদিকে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ঘটনাস্থল থেকে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা ছাত্রদল কর্মী রিপন (২২) কে আটক করে গণধোলাই দিয়ে ৪নং বানিয়াচং দক্ষিণ-পশ্চিম ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি রেখাছ মিয়ার কাছে নিয়ে যায়। পরে চেয়ারম্যান রেখাছ মিয়া ছাত্রদল কর্মী রিপনকে পুলিশে সোপর্দ করেন। এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার এসআই ওমর ফারুক মোড়ল জানান, আটক রিপনের কাছে ৫ পিছ ইয়াবা পাওয়া গেছে। রাতে রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ব্যাপারে কোন মামলা দায়েরের খবর পাওয়া যায়নি।