স্ত্রী নন, পার্টনারের হাত ধরে এলেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী

../news_img/56307mmm.jpg

মৃদুভাষণ  ডেস্ক : স্ত্রী নন, পার্টনার (প্রেমিকা) ফ্রাঁসেসকা প্যাকস্যালের (৩২) হাত ধরে তারই বোনের বিয়েতে যোগ দিলেন ইতালিতে নারী কেলেঙ্কারি ও দুর্নীতির অভিযোগে ব্যাপক আলোচিত সাবেক প্রধানমন্ত্রী সিলভিও বেরলুসকোনি (৮১)।

গত চারটি বছর ধরে বয়সের এত ব্যবধান সত্ত্বেও এই প্রেমিকার মাঝে তিনি খুঁজে পেয়েছেন সব সুখ। নিজের স্ত্রীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পরে তিনি তাকে নিয়ে দিন অতিবাহিত করছেন। শুক্রবার তারা তাই প্রমাণ দিলেন।

প্যাসকেলের ডান হাত যখন নিজের বাম হাতে ধরে হাঁটছিলেন বেরলুসকোনি তখন কে বলবে তারা আধুনিক সময়ের রোমিও-জুলিয়েট নন! কে বলবে তাদের মধ্যে বয়সের ব্যবধান দ্বিগুনের বেশি!

অসম প্রেমে হাবুডুবু খাওয়া এই যুগল শুক্রবার যোগ দিয়েছিলেন ফ্রাঁসেসকা প্যাসকেলের বোন মারিয়ানা প্যাসকেলের বিয়েতে। তারা আইন অনুযায়ী স্বামী-স্ত্রী না হলে কি হবে, প্রেমের স্বীকৃতি হিসেবে সবার সামনেই গিয়ে হাজির হলেন বেরলুসকোনি ও ফ্রাঁসেসকা।

এ সময় ফ্রাঁসেসকা ছিলেন সাদা গাউন পরা। শরীরের উপরের অংশ অনেকটাই ছিল অনাবৃত। তিনি হাসছিলেন। তার দিকে তাকিয়ে হাসছিলেন বেরলুসকোনি নিজেও। শুক্রবার তার প্রেমিকা ফ্রাঁসেসকার বোন মারিয়ানার সঙ্গে বিয়ে হয় কারলো প্যাককুয়েলে গারগুলোর।

সেই অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন বেরলুসকোনি-ফ্রাঁসেসকা। ইতালির দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সালেরনো প্রদেশে ছবির মতো শহর রাভেলো’তে হয় ওই অনুষ্ঠান। স্থানীয় সময় শুক্রবার বিকাল ৪টায় শুরু হয় বিয়ের ওই অনুষ্ঠান। এতে যোগ দিয়েছিলেন প্রায় ৫০ জন অতিথি।

এর মধ্যে ছিলেন তাদের বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের সদস্যরা। ওদিদকে মধ্য ডানপন্থি ফরজা ইতালিয়া (এগিয়ে যাও ইতালি) দল নেতা বেরলুসকোনি ও তার নেপোলিয়ান প্রেমিকা ফ্রাঁসেসকার যোগ দেয়ার কথা ইসচিয়ায় একটি অনুষ্ঠানে।

উল্লেখ্য, নারী কেলেঙ্কারিতে ফেঁসে গিয়ে এবং আইনী মারপ্যাচে সিলভিও বেরলুসকোনি রাজনীতি থেকে দৃশ্যত হাওয়া হয়ে যান ২০১১ সালে ক্ষমতা হারাবার পর। কিন্তু এই বছর নতুন করে আবির্ভূত হওয়ার চেষ্টা করছেন তিনি ও তার দল ফরজা ইতালিয়া।