প্রেমিকের চাহিদা মতো টাকা জোগাড় করতে কিডনি বিক্রির চেষ্টা তরুণীর

../news_img/56415mmm.jpeg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::প্রেম কোনও সীমা মানে না। প্রেমাস্পদকে বিয়ে করতে নিজের কিডনি বিক্রির চেষ্টা করছেন এক তরুণী।
২১ বছর বয়সী ওই নারী ভারতের বিহারের বাসিন্দা। স্বামীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় তাদের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়। বিবাহ বিচ্ছেদের পর বাবা-মায়ের বাড়িতেই থাকতেন ওই তরুণী।

ওই সময় প্রতিবেশী এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার। কিন্তু ওই তরুণীর বাবা-মা ওই যুবকের সঙ্গে বিয়ে দিতে রাজি ছিলেন না। এজন্য বাড়ি ছাড়েন ওই তরুণী। চলে আসেন উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদে। সেখানে ওই যুবক কাজ করেন। তরুণীর আশা ছিল, তাকে বিয়ে করবেন ওই যুবক।

কিন্তু ওই যুবক জানান, তাকে টাকা দিলে তবেই বিয়ে করতে পারবেন। তরুণীর কাছ থেকে ১.৮০ লাখ টাকা চান ওই যুবক।

এরপর টাকা যোগাড়ের জন্য নিজের কিডনি বেচতে দিল্লি চলে আসেন ওই তরুণী। একটি সরকারি হাসপাতালে নিজের একটি কিডনি বেচতে আসেন তিনি। চিকিৎসকরা সন্দেহ করেন যে, কোনও কিডনি চক্রের সঙ্গে যুক্ত ওই মহিলা। তারা মহিলা হেল্পলাইনে ফোন করেন। দিল্লি মহিলা কমিশনের একটি দল হাসপাতালে পৌঁছায়। দলের প্রতিনিধিদের নিজের কিডনি বেচার চেষ্টার কারণ জানান ওই তরুণী।

কমিশনের সদস্যরা তাকে তার প্রেমিকের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করার পরামর্শ দেন। কিন্তু তিনি তা করতে অস্বীকার করেন এবং বিহারে বাবা-মায়ের কাছে ফিরে যান।

দিল্লি মহিলা কমিশন বিষয়টি বিহারের মহিলা কমিশনকে জানিয়েছে। তরুণীকে সহায়তা দানের আর্জিও জানানো হয়েছে। এবিপি আনন্দ।