বাংলাদেশে পেপ্যালের জুম সেবা চালু

../news_img/55088 mrin k.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: দেশে আনুষ্ঠানিকভাবে যাত্রা শুরু করেছে অনলাইনভিত্তিক জনপ্রিয় অর্থ লেনদেন (পেমেন্ট) ব্যবস্থা পেপ্যালের ‘জুম সার্ভিস’।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) এই সেবার উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

‘বাংলাদেশ আইসিটি এক্সপো-২০১৭’র দ্বিতীয় দিনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রকল্প।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বাংলাদেশ ব্যাংকের গর্ভনর ফজলে কবির, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব সুবীর কিশোর চৌধুরী প্রমুখ।

‘পেপ্যাল‍+জুম সার্ভিস অ্যান্ড ফ্রিল্যান্সার কনফারেন্স’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে এই সেবার উদ্বোধন করে সজীব ওয়াজেদ বলেন, এত দিন ধরে প্রবাসীরা বিভিন্ন চ্যানেলে তাঁদের কষ্টার্জিত অর্থ দেশে পাঠাচ্ছেন। এতে যেমন পয়সা বেশি খরচ হচ্ছে, তেমনি বিড়ম্বনার শিকারও হচ্ছেন। পেপ্যালের জুম সেবা চালুর মাধ্যমে এখন থেকে তাঁরা সহজেই পেপ্যালের অ্যাকাউন্ট থেকে দুই ঘণ্টার মধ্যে অর্থ দেশে পাঠাতে পারবেন।

তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, ‘ফ্রিল্যান্সিংয়ে বিশ্বের দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। পেপ্যাল সার্ভিসের মাধ্যমে বিদেশ থেকে অর্থ আনার সুযোগ সৃষ্টি করা ফ্রিল্যান্সারদের দীর্ঘদিনের দাবি। এই সেবা উদ্বোধনের মাধ্যমে সেই দাবি পূরণ হলো।

তিনি বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও আপাতত পেপ্যালের জুম সার্ভিসের মাধ্যমে আমাদের ফ্রিল্যান্সার ও প্রবাসী বাংলাদেশিরা অর্থ পাঠাতে (ইনবাউন্ড) পারবেন। তবে দেশ থেকে অর্থ বিদেশে পাঠানো যাবে না। প্রধানমন্ত্রীর আইসিটিবিষয়ক উপদেষ্টার নেতৃত্বে পর্যায়ক্রমে আউটবাউন্ডসহ পরিপূর্ণ পেপ্যাল সেবা চালু করতে আমাদের উদ্যোগ অব্যাহত থাকবে।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেন, এই সেবা চালুর ফলে বাংলাদেশের পাঁচ লাখ ফ্রিল্যান্সার উপকৃত হবেন।

অনুষ্ঠানে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের লার্নিং অ্যান্ড আর্নিং প্রকল্প থেকে বাছাই করা দুই হাজার ফ্রিল্যান্সার অংশ নেন। তাঁদের মধ্যে ১৬ জনকে পুরস্কৃত করা হয়।

বর্তমানে বিশ্বের ২০৩টি দেশে পেপ্যাল সেবা চালু আছে। এর মধ্যে মাত্র ২৯টি দেশে পেপ্যালের পূর্ণাঙ্গ সেবা চালু আছে এবং ১০৩টি দেশে শুধু ইনবাউন্ড সেবা চালু রয়েছে।

জুম সেবা চালুর ফলে এখন থেকে যুক্তরাষ্ট্রের পেপ্যাল অ্যাকাউন্টধারীরা তাঁদের পেপ্যাল ওয়ালেট ব্যবহার করে প্রতিবার সর্বোচ্চ ১০ হাজার ডলার পাঠাতে পারবেন। প্রতি লেনদেনে এক হাজার ডলার পর্যন্ত পাঠাতে ৪ দশমিক ৯৯ ডলার ফি লাগবে। আর এক হাজার ডলারের বেশি অর্থ পাঠাতে কোনো ফি লাগবে না।

প্রাথমিকভাবে এই সেবা চালু হচ্ছে সোনালী ব্যাংক, রূপালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক, অগ্রণী ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক, ইসলামী ব্যাংক, সোস্যাল ইসলামী ব্যাংক ও সিটি ব্যাংকে।