ওদের সান্ত্বনা দেবে কে!

../news_img/56649mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::মিলাদ জয়নুল, বিয়ানীবাজার (সিলেট) থেকে : বাবা শুধু একজন মানুষ নন, স্রেফ একটি সম্পর্কের নাম নয়। বাবার মাঝে জড়িয়ে আছে বিশালত্বের এক অদ্ভুত মায়াবী প্রকাশ।

বাবা নামটা উচ্চারিত হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যেকোনো বয়সী সন্তানের হৃদয়ে শ্রদ্ধা, কৃতজ্ঞতা আর ভালোবাসার এক অনুভব জাগে। সেই শ্রদ্ধার মানুষটি শক্ত করে আর আগলে রাখবেন না তার প্রিয় সন্তানদের।

চট্টগ্রাম থেকে ফিরে সদ্যোজাত কন্যা সন্তানকে নানা বাড়ি নিয়ে যাবেন- যাওয়ার আগে স্ত্রীকে এ কথা দিয়েছিলেন ব্যবসায়ী জোবের আহমদ। সন্তানের চল্লিশ দিন পূর্ণ হওয়ার আগে ঠিকই কফিনবন্দি হয়ে বাড়ি এসেছেন।

তাই মেয়েকে নানা বাড়ি নিয়ে যাওয়া হয়নি। তিনি পাড়ি দিলেন পরপারে। ব্যবসায়ী জোবের ব্যস্ততার ফাঁকে সময় পেলে ছেলেকে নিয়ে ঘুরতে বের হতেন। বাবার সে ভালোবাসা, আদর কি  কখনো ভুলতে পারবে না ৭ বছরের সন্তানটি?

ব্যস্ত সময়ের ফাঁকে যতটুকু সময় পেতেন ব্যবসায়ী রেজাউল করিম- তিন সন্তানকে নিয়ে সে সময়ে হাসি ঠাট্টায় মেতে উঠতেন। কাঁধে নিয়ে মজা করা, সন্তানদের নিয়ে সেলফি তোলা সবই করতেন অবসর সময়ে।

অবুঝ এই সন্তানগুলো গত দু’তিন দিন থেকে বাবার অনুপস্থিতি বোধ করছে। মা ও দাদি মিথ্যে সান্ত্বনা দিচ্ছেন অবুঝ সন্তানদের। রেজাউল তার সন্তানদের কাছে ঠিকই আসলেন- তবে লাশ হয়ে। বাবাহারা সন্তানরা ‘সেই’ অফুরান ভালোবাসা কার কাছে পাবে?

শখ কসমেটিক্স এর পরিচালক খায়রুল বাশার খয়েরের ‘শখ’ ছিল ঘুরে বেড়ানো। তার ঘোরাঘুরির সঙ্গী কন্যা ও পুত্র। কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত কিংবা আহসান মঞ্জিল। সন্তানদের নিয়ে বেড়ানোর ক্ষণগুলো এখন অবুঝ শিশুদের খুব পীড়া দেবে।

অবসর সময়ে কিংবা যে সময়গুলো বাড়ি থাকতেন তার সন্তানরা থাকতো সঙ্গে সঙ্গে। স্কুলে নিয়ে যাওয়া, স্কুল থেকে বাড়ি নিয়ে আসা নিজ দায়িত্বে করতেন। এখন বাবাহীন সন্তানদের সেই ভালোবাসা কিভাবে পূর্ণ হবে।

একই রকমভাবে বাবার অভাব বোধ করবে অপর ব্যবসায়ী বোরহান উদ্দিন ইকবাল ও চালক বাবুল আহমদের সন্তানেরা। ইকবালের পরিবারের সহায় সম্পত্তি আছে। কিন্তু গাড়ি চালক বাবুল আহমদের কিছুই নেই।

এলাকার মানুষের সাহায্য সহযোগিতায় বড় হতে হবে তার সন্তানদের। তিনি গাড়ি ভাড়ায় যতবার ঢাকা যাতায়াত করতেন ততবার সন্তানদের জন্য খেলনা নিয়ে আসতেন। এখন বাবা নেই, খেলনা নিয়ে আসবে কে?  

রোটার‌্যাক্ট বাবুল আহমদের বাবা নেই প্রায় ৬ বছর থেকে। এতদিন থেকে বাবার আদর বঞ্চিত এই দুরন্ত যুবক অভিভাবকহীন ছিলেন। তবুও সামাজিকভাবে ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা ছিল তার। পরিবারের ছোট ছেলেটি বাবার আদর পেতেন ভাইদের কাছ থেকে।

ওপারে পাড়ি দেয়া বাবুল এখন সবার মায়ার বাঁধন ছিন্ন করলেন চিরতরে। বড় হয়ে বাবাহারা সন্তানেরা জানবে ঘাতক বাস তাদের প্রিয় বাবাকে কেড়ে নিয়েছে। ওই বাবাদের ভালোবাসার রক্ত ঝরে লাল হয়েছে ধূসর পথ।

গত সোমবার সকাল ৭টার দিকে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নরসিংদীর মাধবদী উপজেলার কান্দাইল বাসস্ট্যান্ডের কাছে এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হন বিয়ানীবাজারে চার ব্যবসায়ীসহ ৬ জন।

মঙ্গলবার তাদের পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। নিহতদের পাঁচজনের ছেলে সন্তান রয়েছে। বাবাহীন তাদের দিন কেমন কাটবে, এ নিয়েও নানা আবেগী কথা-আলোচনা হচ্ছে বিয়ানীবাজারে। নিহতদের সবার বাড়ি উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে। -এমজমিন