রাজধানীতে শপিং মল থেকে অপহৃত শিশু ৭ ঘন্টা পর উদ্ধার, আটক ৩

../news_img/56820mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::রাজধানীর অভিজাত শপিং মল পুলিশ প্লাজা কনর্কডে লোকজনের সামনে থেকেই একটি শিশুকে অপহরণ করা হয়। এরপর ১০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। রাতভর পুলিশের অভিযানে ভোররাতে ধরা পড়ে অপহরণ চক্রটি। অপহৃত শিশুকে উদ্ধার করা হয়। এসময় তিনজনকে আটক করে পুলিশ।

শুক্রবার রাত আটটার দিকে সাড়ে পাঁচ বছরের শিশু তাওসিফুর রহিমকে নিয়ে শপিং মল পুলিশ প্লাজা কনর্কডে কেনাকাটা করতে যান মমিন আহমেদ ও স্ত্রী নাজমুন আরা। হঠাৎ চোখের নিমেষে লাপাত্তা তাওসিফুর। খোঁজাখুজি করেও ছেলেকে না পেয়ে খবর দেন নিরাপত্তা কর্মকর্তাদের।

পরে শপিং মলের সিসিটিভি ফুটেজে স্পষ্ট হয় অপহরণ চিত্র। পুলিশের মার্কেট থেকে অপহরণে তৎপর হয় পুলিশ। রাত সাড়ে দশটার দিকে মোবাইল ফোনে বাবার কাছে দশ লাখ টাকা মুক্তিপন দাবি করা হয়। এই ফোনের সূত্র ধরে অভিযান চালায় পুলিশ।

অপহরণকারীদের কথা মতো টাকা নিয়ে রাজধানীর নাবিস্কো, সাতরাস্তা, বিজয় স্মরণী লিংক রোডে ছুটতে থাকেন বাবা। বিজয় স্মরণীর ফ্লাইওভার থেকে নিচে টাকার ব্যাগ ফেলা হয় অপহরণকারীদের। কিন্তু তাদের সাথে ছিলো না শিশু তাওসিফুর। সেখান থেকেই আটক করা হয় এক অপহরণকারীকে।

তার দেয়া দেয়া তথ্য অনুযায়ী, রাজধানীর মধ্য কুনিপাড়ায় অভিযানে যায় পুলিশ। পরে ভোর রাত চারটার দিকে সেখানের একটি মেস থেকে উদ্ধার করা হয় শিশুটিকে। আটক করা হয় অপর দুই অপহরণকারীকেও। এ নিয়ে রাজধানীর গুলশান থানায় অপহরণের মামলা হয়েছে।