এক ঘণ্টার সাক্ষাৎকার দিতে সাড়ে তিন কোটি টাকা চাইলেন গেইল!

../news_img/46955mri nui.jpg


মৃদুভাষণ ডেস্ক::সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার ফেয়ারফ্যাক্স মিডিয়া গ্রুপের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করে জিতেছেন গেইল। এ উপলক্ষ্যে বেশ অর্থপ্রাপ্তিও ঘটবে গেইলের। তবে তাতেও যেন সন্তুষ্ট হতে পারছেন না ক্যারিবিয়ান এই ব্যাটিং দানব। মানহানির এই মামলাসংক্রান্ত ভেতরের সব তথ্য নিয়ে একটা সাক্ষাৎকার দিতে চান গেইল। এক ঘণ্টার সেই সাক্ষাৎকারের জন্য পত্রিকাগুলোর কাছে তার চাওয়া চার লাখ বিশ হাজার ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় সাড়ে তিন কোটি টাকা!

২০১৫ বিশ্বকাপের একটি ম্যাচে সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডের ড্রেসিংরুমে তিনি নাকি লিয়ান্নে রাসেল নামের একজন নারী ম্যাসাজ থেরাপিস্টের সামনে তোয়ালে খুলে ফেলেছিলেন। দেখিয়েছিলেন শরীরের গোপনাঙ্গ! চলতি বছরের জানুয়ারিতে এই ব্যাপারটি নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার ফেয়ারফ্যাক্স মিডিয়া গ্রুপের বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যম যেমন সিডনি মর্নিং হেরাল্ড, দ্য এজ এবং দ্য ক্যানবেরা টাইমসে ধারাবাহিকভাবে কিছু প্রতিবেদন ছাপা হয়।

এতে ক্ষুব্ধ হয়ে অস্ট্রেলিয়ার সেই মিডিয়া গ্রুপের নামে মানহানির মামলা করে দেন গেইল। সেই মামলা জিতেও নিয়েছেন ক্যারিবিয়ান এই ব্যাটিং দানব। মামলা জেতার পর গেইল দাবি করছেন, এই মামলা নিয়ে তার সঙ্গে যা হয়েছে সেটা নিয়ে পুরো একটা চলচ্চিত্রই বানিয়ে ফেলা সম্ভব। তার মতে, অস্ট্রেলিয়ার সেই মিডিয়া গ্রুপ তাকে বলির পাঁঠা বানাতে চেয়েছিল। পর্দার আড়ালে যা ঘটেছে তার সবই জানাতে চান তিনি। তবে তার জন্য লাগবে আড়াই কোটি টাকা!

এ প্রসঙ্গে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে গেইল লিখেছেন, ‘আকর্ষণীয় একটি গল্প বলার আছে আমার। এটা এক ঘণ্টার একটি সাক্ষাৎকার হতে পারে অথবা আমার পরবর্তী বইয়ের জন্য সবাইকে অপেক্ষা করতে হবে। কোর্টে কী হয়েছিল সেটা বলা হবে। বলা হবে, অস্ট্রেলিয়ায় পর্দার আড়ালে কী হচ্ছিল, কীভাবে তারা আমাকে আজীবন নিষিদ্ধ করারা চেষ্টা চালিয়েছে। কীভাবে তারা আমাকে বলির পাঁঠা বানাতে চেয়েছিল, সবই বলব। বিশ্বাস করো, সব শোনার পর একটা সিনেমা মনে হবে। কিছু বাদ রাখব না। ৩০০ লাখ ডলার দিয়ে নিলামের শুরু করলাম। আর এর জন্য আপনাকে জ্যামাইকায় উপস্থিত হতে হবে।’

এই নিলামে কেউ অংশ নিয়েছেন কি না, সেটা অবশ্য জানা যায়নি এখনো। তবে এক ঘণ্টার জন্য আড়াই কোটি টাকা চাওয়া নতুন করে আলোচনার জন্ম দিয়েছেন ক্যারিবিয়ান এই তারকা ব্যাটসম্যান। সূত্র- গার্ডিয়ান।