যে কারণে কাঁদতে কাঁদতে সংবাদ সম্মেলন ত্যাগ করলেন নেইমার

../news_img/46960mri nui.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্::ফ্রান্সের লিলে শহরে শুক্রবার প্রীতি ম্যাচে জাপানের বিপক্ষে ৩-১ গোলের দারুণ জয় পেয়েছে ব্রাজিল। অবশ্য এ ম্যাচে ব্রাজিল জিততে পারত আরও বেশি গোল ব্যবধানে। অবশ্য ম্যাচের অধিকাংশ সময় জাপানের রক্ষণভাগকে তটস্থ রেখে আলো ছড়িয়েছেন তিতের শিষ্যরা।

১০ মিনিটের মাথায় ব্রাজিলের ফার্নান্দিনহো জাপানের বক্সে ফাউলের শিকার হলে ভিডিও অ্যাসিস্ট্যান্ট রেফারি (ভিএআর) প্রযুক্তির সাহায্য নিয়ে পেনাল্টির বাঁশি বাজান মাঠের রেফারি। স্পট কিক থেকে এ যাত্রায় ঠান্ডা মাথায় গোল করেন নেইমার। ব্রাজিলের হয়ে এ নিয়ে ৫৩ গোল করলেন নেইমার। এর মধ্যে জাপানের জালে ৮ গোল।

কিন্তু এগিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর আবারও পেনাল্টি পায় ব্রাজিল। তবে গোল করতে পারেনি ব্রাজিল। অবশ্য কর্নার থেকে উড়ে আসা বল ‘ক্লিয়ার’ করতে পারেনি জাপানও। এ সুযোগে বজ্রগতির শটে বল জালে জড়ান রিয়াল ডিফেন্ডার।

ম্যাচ শেষে পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে কোচ তিতে সঙ্গে আনেন দলের সবচেয়ে বড় তারকাকে। তবে উপস্থিত সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে একের পর এক আক্রমণ আসতে থাকে নেইমারকে লক্ষ্য করে। প্রীতি ম্যাচ কিংবা ব্রাজিল জাতীয় দল রেখে প্যারিস সেন্ট জার্মেইকে (পিএসজি) কেন্দ্র করেই প্রশ্ন করতে থাকেন তারা। ক্লাবের প্রতি তার অঙ্গিকার নিয়েও প্রশ্ন তোলেন সাংবাদিকদের অনেকেই।

ফরাসি সাংবাদিকদের এমন আক্রমণে কেঁদে ফেলেন নেইমার। এসময় নেইমারের হয়ে কথা বলেন কোচ তিতে। তিনি আগেই অনুমতি চেয়ে নেন, ‘আপনারা যদি সমর্থন করেন তবে নেইমারের বিষয়ে আমি কথা বলতে চাই।’

এরপর তিনি বলেন, ‘আমরা গত দেড় বছর ধরে একসঙ্গে কাজ করছি আর আমি একথা শুনতে শুনতে ক্লান্ত হয়ে পড়েছি যে, তিতের সঙ্গে নেইমারের সমস্যা চলছে। কারণ, ড্রেসিংরুমে তার প্রভাব। আমরা নিখুঁত নই। আমরা মানুষ এবং অনেক সময় সঠিক পন্থায় প্রতিক্রিয়া দেখাই না। এটা আমার ক্যারিয়ারেও হয়েছে। এটা কি ভুল? অনেক ধরনের পারিপার্শ্বিক পরিবেশ থাকে এবং সেগুলোকে ঢালাওভাবে সামগ্রিক রূপ দেয়া থেকে বিরত থাকা উচিৎ।’

এসময় নেইমারের প্রশংসা করেন তিনি। ব্রাজিলিয়ান কোচ বলেন, ‘আমাদের উচিৎ নেইমারের চরিত্র, তার স্বভাব এবং বিশাল হৃদয়টাকে নিয়ে কথা বলা।’

এদিকে সাংবাদিকদের সব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে নেইমার বলেন, ‘তারা (ফরাসি সাংবাদিকরা) অনেক গল্পই বানিয়েছে যা সত্য নয়। কোচ (উনাই এমেরি) এবং কাভানির সঙ্গে আমার কোনো সমস্যা নাই। প্যারিসের সবকিছুই পারফেক্ট, আমি এখানে ভালো আছি, সুখে আছে এবং আমি পিএসজিতে সেই খেলোয়াড় হতে চাই যে কিনা মাঠে সতীর্থদের জন্য সবকিছু দিতে পারে। শেষ পর্যন্ত কান্না থামাতে না পেরে সংবাদ সম্মেলন ত্যাগ করেন নেইমার। সূত্র: গার্ডিয়ান

গত বছরের জুনে তিতে কোচের দায়িত্ব নেওয়ার পর ১৬ ম্যাচে এ নিয়ে ১৩তম জয় পেল পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। আগামী সপ্তাহে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে পরের প্রীতি ম্যাচ খেলবে ব্রাজিল।