রাজধানীতে হঠাৎ গণপরিবহন উধাও!

../news_img/57010mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে রোববার (১২ নভেম্বর) অনুষ্ঠিত বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে ফাঁকা হয়ে গেছে যানজটের নগরী ঢাকার রাস্তা। যানবাহন সংকটে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ মানুষ। এমনকি ফাঁকা হয়ে পড়েছে গুলিস্তানের মতো চিরচেনা যানজটের এলাকাও।

সকাল সাড়ে ৯টায় রাজধানীর রায়েরবাগ এলাকায় দেখা গেছে শত শত মানুষ গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছে। কিন্তু রাস্তায় কোনো যানবাহন নেই। বিশেষ করে নারী ও শিশুরা পড়েছে চরম ভোগান্তিতে। সাধারণ মানুষকে সরকারের ওপর চরম ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

রাস্তায় কোনো যানবহান নেই। রাস্তার চিত্র দেখে মনে হচ্ছে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অঘোষিত হরতাল চলছে।

এছাড়া, পার্শ্ববর্তী জেলাগুলো থেকেও ঢাকামুখী সব গণপরিবহন বন্ধ থাকার খবর পাওয়া গেছে। এদিকে মুন্সীগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ ও সোনারগাঁও থেকেও ঢাকামুখী কোনো গণপরিবহন চলেনি। দুয়েকটি বাস চললেও তা পরে বন্ধ হয়ে যায়।

জেলা প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ঢাকা-আরিচা, ঢাকা-গাজীপুর এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম সড়কে যান চলাচল নিয়ন্ত্রিত রয়েছে।

এদিকে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমরা সকাল থেকেই খবর পাচ্ছি বিভিন্ন দিকে রাস্তাঘাট বন্ধ করে দিয়েছে। মহাসড়ক বন্ধ করেছে যেন নেতাকর্মীরা সমাবেশে যোগ দিতে না পারেন। সমাবেশকে বাধাগ্রস্ত করতেই এমন করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, রোববার দুপুর ২টায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে। এতে দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন।