বিএনপি পাগল আবু সাঈদ

../news_img/56819 mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: দীর্ঘদিন পর অনুষ্ঠিত বিএনপির সমাবেশে যোগ দিতে নানা রঙ-বেরঙের সাজে উপস্থিত হয়েছেন নেতাকর্মীরা। কেউ মাথায় নিজ নিজ সংগঠনের ফিতা, কেউবা ক্যাপ নিয়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশে এসেছেন। তবে মূল মঞ্চের অসংখ্য নেতাকর্মীর মধ্যে চোখ আটকে গেল জীর্ণশীর্ণ শরীরের একজন বয়স্ক মানুষকে দেখে।

৬৫ বছর বয়সী মানুষটার নাম আবু সাঈদ। পেশায় সাইকেলের মেকার এই মানুষটি হাতে একটি লাঠির উপরে শুকনো ধানের বেশ কিছু ছড়ি শক্ত করে বেঁধে এদিক সেদিক ছুটছেন। কৌতুহলী মানুষটিকে ঘিরে কেউ ছবি তুলছেন, কেউবা সেলফি তুলছেন।

কাছে গিয়ে কথা বলে জানা গেলো সিরাজগঞ্জ থেকে ছুটে আসা আবু সাঈদ বিএনপি করেন। বলছেন, ‘জিয়া, খালেদা, তারেক জিয়াকে ভালোবাসি। খালেদা জিয়ার সমাবেশ হবে তাই ঢাকায় চলে এসেছি।’

আবু সাঈদ জানান, শনিবার মফিজ বাসে করে সিরাজগঞ্জ থেকে গাবতলী এসেছেন। রংপুর-ঢাকায় চলাচলকারী এই বাসে নাকি ভাড়া অনেক কম। তিনি বলেন, ভোর রাতে গাবতলী নেমে চা খেয়ে দিনের আলোর জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন। পরে পায়ে হেঁটে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হাজির হন।

গাবতলী থেকে পায়ে হেঁটে আসলেন কেন জানতে চাইলে তিনি বলেন, টাকা নেই তাই হেঁটে এসেছি।

তাহলে কেন কষ্ট করে আসলেন- বলেন, বিএনপিকে ভালোবাসি। বিএনপি থাকলে শান্তিতে থাকতে পারি।

তিন সন্তানের জনক আবু সাঈদ জানান, তার এক ছেলে এসএসসি পরীক্ষা দেবে। ফরম ফিলাপে লাগবে তিন হাজার টাকা। কইলাম গরিব মানুষ, কিন্তু কম নিবে না। একজন সিক্সে পড়ে। মেয়ে ছোট।

তিনি আরও জানালেন, বিএনপির সমাবেশের কথা শুনলে চলে যান তিনি। এর আগে বগুড়াতে একবার সমাবেশে যোগ দেয়ার কথা বললেন।

ছবি তুলতে চাইলে হাসি দিয়ে বললেন, ‘তোলেন,কতগুলা তুলবেন। সমস্যা নাই। কথা শুনে পাশে দাঁড়ানো সবার সঙ্গে আবু সাঈদও অট্টহাসিতে ফেটে পড়েন।’