যে কারণে বাবার মৃত্যুতে নেচে গেয়ে আনন্দ করছেন কন্যারা

../news_img/57018mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক : প্রিয়জনের মৃত্যুতে সবাই কান্না করে। আর মৃত্যু যদি হয় নিজের বাবার তাহলে শোক একটু বেশিই হবে এটায় স্বাভাবিক। কিন্তু বাবার মৃত্যুতে নেচে গেয়ে আনন্দ করেছেন ভারতের দিল্লীর নয়ডার চার কন্যা।
 
জানা গেছে, পান সেলার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের জাতীয় সভাপতি, গুটখা কিং নামে খ্যাত হরিভাই লালওয়ানির বৃহস্পতিবার রাতে ব্রেন স্ট্রোক হয়। শুক্রবার মারা যান তিনি।

মৃত্যুর আগে মেয়েদের জানিয়ে যান তার শেষ ইচ্ছা, তার মৃত্যুতে যেন শোকযাত্রা না বার করা হয়, তার থেকে যেন শোভাযাত্রা করা হয়, ধুমধাম করে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় শ্মশানের দিকে।
 
বাবার ইচ্ছাকে মর্যাদা দিয়ে মহা সমারোহের মধ্য দিয়ে তার দেহ শ্মশানে নিয়ে যান হরিভাইয়ের ৪ মেয়ে। ব্যান্ড বাজিয়ে শুরু হয় পথ চলা, সঙ্গে সদ্য পিতৃহারা ৪ বোনের নাচ। তারাই বাবার দেহ কাঁধে তুলে শ্মশানে নিয়ে আসেন, মুখাগ্নিও করেন তারা।

১৯৯০ সালে দিল্লিতে ছোট্ট একটি পানের দোকান খুলে যাত্রা শুরু করেন হরিভাই লালওয়ানি। এরপর তিনি ব্যবসা এতটাই সফল হয়েছেন যে স্থানীদের কাছে তিনি গুটখা কিং নামে পরিচিত পান।