সিলেটের এমসি কলেজে ‘ভাড়ায় সন্ত্রাসী কাজ’ করতেন তারা ৩ জন!

../news_img/57019mmm.jpeg

মৃদুভাষণ ডেস্ক:: সিলেট এমসি কলেজে বিভিন্ন নাশকতার সময় ভাড়ায় সন্ত্রাসী কাজ করতেন তারা তিন জন। শুধু তাই নয়, ভারতীয় সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে চোরাচালানের মাধ্যমে দেশে অস্ত্র নিয়ে আসতেন তারা। সেসব অস্ত্র ভাড়াও দিতেন। এছাড়া তারা নানা ধরনের অপরাধকর্মে জড়িত ছিলেন। এই তিন জনকে আটক করেছে র‌্যাব।

সিলেট মহানগরীর শাহপরান থানার শ্যামলী আবাসিক এলাকার ১নং রোড এলাকা থেকে তাদেরকে শনিবার দিবাগত রাতে আটক করে র‌্যাব। তাদের কাছ থেকে একটি শুটারগান, ২ রাউন্ড গুলি ও ছোরা জব্দ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

আটককৃতরা হচ্ছেন- কুমিল্লা জেলার ব্রাহ্মণপাড়ার নাগাইস গ্রামের জসিম উদ্দিনের ছেলে মুন্না আহমদ (২৬), জৈন্তাপুর উপজেলার চতুল বাজারের মৃত ফরিদ মিয়ার ছেলে রুহেল আহমদ (১৯), সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার থানার সোনাপুর গ্রামের আজমান আলীর ছেলে নবীন হোসেন (৩০)। এরা  তিনজনই বর্তমানে শাহপরান থানা এলাকায় বসবাস করছিল।

র‌্যাব-৯ এর সিনিয়র সহকারি পরিচালক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মনিরুজ্জামান জানান, শাহপরান থানার শ্যামলী আবাসিক এলাকার ১নং রোডস্থ শ্যামলী জামে মসজিদের সামনে ছিনতাই করার প্রাক্কালে এ তিনজনকে আটক করা হয়। আটককৃতরা জিজ্ঞাসাবাদের জানিয়েছে, তারা ছিনতাই করার উদ্দেশ্যে ওই স্থানে সমবেত হয়।

তিনি জানান, এ তিনজন এমসি কলেজে নাশকতার সময় ভাড়াটে সন্ত্রাসী হিসেবে কাজ করতো। এছাড়া সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে চোরাচালানের মাধ্যমে দেশে অস্ত্র নিয়ে আসতো। তাদেরকে শাহপরান থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।