‘১০০ বছরেও বিএনপি’র মতো সমাবেশ করতে পারবেনা আ. লীগ’

../news_img/57075mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::১২ নভেম্বর রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বিএনপি’র সমাবেশ পন্ড করতে সরকারের সব বাধার পরেও বিএনপি’র সমাবেশে যে পরিমান লোক হয়েছিল তা আওয়ামী লীগ আরও ১’শ বছর চেষ্টা করলেও পারবেনা বলে মন্তব্য করেছেন বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী।

বুধবার (১৫ নভেম্বর) সন্ধ্যায় সখীপুর উপজেলা ডাকবাঙলো চত্তরে স্থানীয় কৃষক শ্রমিক জনতালীগ আয়োজিত ‘ভোট ডাকাতি দিবস’ পালন উপলক্ষে সমাবেশে কৃষক শ্রমিক জনতালীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরোত্তম প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘ঢাকায় যানবাহন প্রবেশ করতে না দেয়া, আগের রাতে বিএনপি’র নেতাকর্মীদের গ্রেফতার, এমনকি সমাবেশের খবর সকল টেলিভিশনে প্রচার-প্রচারণা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।’

কাদের সিদ্দিকী নির্বাচন কমিশনারের সমালোচনা করে বলেন, ‘জিয়াউর রহমানকে বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা বলায় নির্বাচন কমিশনার নির্বোধের প্রমাণ দিয়েছেন।’

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘৫ জানুয়ারির মতো এ দেশে আবার নির্বাচন হলে শেখ হাসিনাকে সবাই মহিলা স্বৈরাচারী শাসক বলবে কিন্ত আমি তা হতে দেব না। আমি আওয়ামী লীগের রাজনীতি করি না বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি করি। যে রাজনীতি করলে শেখ হাসিনার বদনাম হয় আমি সে রাজনীতিও করিনা।’

সমাবেশে উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি আতাউর রহমানের সভাপতিত্বে কৃষক শ্রমিক জনতালীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান খোকা বীর প্রতীক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইকবাল সিদ্দিকী, জেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসমত আলী নেতা, উপজেলা কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর জুলফিকার শামীম, কেন্দ্রিয় যুব আন্দোলনের আহবায়ক হাবিবুন-নবী-সোহেল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

১৯৯৯ সালের ১৫ নভেম্বর টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল-সখীপুর) আসনে অনুষ্ঠিত উপ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সরকার কৃর্তক গণমানুষের ভোটের অধিকার হরণের প্রতিবাদে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ প্রতিবছর ১৫ নভেম্বর ভোট ডাকাতি দিবস পালন করে আসছেন।