জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট গঠনে অনিয়ম হয়নি : খালেদা

../news_img/39608mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট গঠন ও পরিচালনায় কোন অনিয়ম হয়নি বলে জানিয়েছেন বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। তিনি বলেছেন, জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন করতেই এসব মামলা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় পঞ্চম বারের মতো আদালতে আত্মপক্ষ সমর্থনে বক্তব্য দিতে  গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে তিনি আদালতে খালেদা জিয়া পৌঁছান বলে জানিয়েছেন দলটির চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান।

পুরান ঢাকার বকশীবাজারে আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে স্থাপিত বিশেষ আদালতে এই দুই মামলার শুনানি চলছে।

দুর্নীতি দমন কমিশনের দায়ের করা এই দুই মামলায় গত ১২ অক্টোবর খালেদা জিয়ার জামিন বাতিল করে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত। ১৯ অক্টোবর আদালতে আত্মসমর্পণ করে দুই মামলায় জামিন পান তিনি। ১৯ অক্টোবর, ২৬ অক্টোবর, ২ ও ৯ নভেম্বর এই চারদিন জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনের শুনানিতে ঘণ্টাব্যাপী বক্তব্য দেন খালেদা জিয়া। তবে তার বক্তব্য শেষ হয়নি।

উল্লেখ্য, ২০১০ সালের ৮ আগস্ট খালেদা জিয়াসহ চার জনের বিরুদ্ধে তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলাটি দায়ের করে দুদক। আর এতিমদের জন্য বিদেশ থেকে আসা দুই কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই জিয়া অরফানেজ মামলাটি দায়ের করে সংস্থাটি। দুই মামলার অভিযোগপত্রে খালেদা জিয়া, তার বড় ছেলে তারেক রহমান, কাজী সালিমুল হক কামাল ওরফে ইকোনো কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমানকে আসামি করা হয়।