রোহিঙ্গা সংকট : তিন ধাপে সমাধানের প্রস্তাব চীনের

../news_img/57148 mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক : তিন ধাপে রোহিঙ্গা সংকট নিরসনের প্রস্তাব দিয়েছে চীন। সোমবার মিয়ানমারের রাজধানী নেপিদোতে আসেম সম্মেলনে চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই এ প্রস্তাব তুলে ধরেন।

এশিয়া ও ইউরোপের ৫১টি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের সম্মেলনের উদ্বোধন করেন মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি। উদ্বোধনী অধিবেশনে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘লোকজন যাতে শান্তিতে থাকতে পারে এবং পালিয়ে যেতে বাধ্য না করা হয় সেজন্য শান্তি-শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে প্রথম ধাপে অস্ত্রবিরতি কার্যকর করতে হবে।প্রত্যেক পক্ষের অক্লান্ত পরিশ্রমের কারণে প্রথম ধাপ ইতিমধ্যে প্রাথমিকভাবে অর্জিত হয়েছে এবং মূল বিষয়টি হচ্ছে সহিংসতা যেন উস্কে না ওঠে, বিশেষ করে যুদ্ধের অগ্নিস্ফুলিঙ্গ যেন জ্বলে না ওঠে।

গত সপ্তাহে মিয়ানমার সফরকালে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন অবশ্য চীনের তোলা প্রস্তাবের অধিকাংশ বিষয় তুলে ধরেছিলেন। তবে তিনি মিয়ানমার সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে যে নৃশংসতার অভিযোগ উঠেছে তা খতিয়ে দেখতে বিশ্বাসযোগ্য তদন্ত কমিটির মাধ্যমে তা খতিয়ে দেখার আহ্বান জানিয়েছিলেন।

চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার প্রস্তাবে বলেছেন, অস্ত্রবিরতি কার্যকর হলে দ্বিতীয় ধাপে রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে  বাংলাদেশ ও মিয়ানমারকে্ একটি কার্যকরী সমাধানের জন্য কাজ করতে হবে। আর তৃতীয় ও চূড়ান্ত ধাপে রোহিঙ্গাদের দারিদ্রতা দূরীকরণে দীর্ঘমেয়াদী সমাধানের জন্য কাজ করতে হবে।

গত ২৫ আগস্ট থেকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রোহিঙ্গা দমন অভিযানে নামে। সেনাবাহিনীর নির্যাতন থেকে ও প্রাণে বাঁচতে এ পর্যন্ত ছয় লাখের বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। মিয়ানমার কর্তৃপক্ষ অবশ্য নির্যাতনের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। রোহিঙ্গাদের নিয়ে আন্তর্জাতিক চাপ সত্ত্বেও মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন দলের নেত্রী অং সান সু চি নীরব্ ভূমিকা পালন করে যাচ্ছেন।