ওসমানীনগরে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন জালালিয়ার বিশাল র‌্যালী

../news_img/Osmaninagar Sylhet Pic-26-11-17.jpg


ওসমানীনগর(সিলেট)প্রতিনিধি::সিলেটের ওসমানীনগরে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উদযাপন উপলক্ষ্যে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে জালালিয়া আল কুরআন গবেষণা পরিষদের উদ্যোগে বর্ণাঢ্য র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়েছে।  রোববার সকাল ১১টায় উপজেলার শাহজালাল লতিফিয়া ক্যাডেট মাদরাসা প্রাঙ্গন থেকে  র‌্যালিটি শুরু হয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মোল্লাপাড়া আহমদিয়া দাখিল মাদরাসা প্রাঙ্গনে গিয়ে শেষ হয়।

সকাল ১০টা থেকে দুই উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের মুসলিম জনতা ও মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষক মিছিল সহকারে  জমায়েত হতে থাকেন। এলাকার আকাশে বাতাসে প্রতিধ্বনিত হয় সালাত-সালাম, ও নাতে রাসূল পরিবেশনার সুমধুর সুর লহরি। নবী করীম (সা.) এর শানে আশেকে রাসূলদের কণ্ঠে কণ্ঠে উচ্চারিত হয় সালাম সালাম নবী সালাম সালাম, বালাগাল উলা-বি কামালিহি, শামছুদ্দুহা আস্সালাম, আস্সালাতু আলান নাবী....এ রকম আগণিত নাতে রাসুল। এতে সৃষ্টি হয় অন্য রকম আমেজ।


কালেমা খচিত ও রাসুল (সা:) এর শানে রচিত নানা কালজয়ী কবিতা দিয়ে সাজানো ফেষ্টুন ও সুদৃশ্য প্লেকার্ড হাতে নিয়ে বর্ণাঢ্য মুবারক র‌্যালীটি সুশৃংখলভাবে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক প্রদক্ষিণ করে রাসূল প্রেমিক ছাত্র-জনতা।

এ র‌্যালীতে নেতৃত্ব দেন জালালিয়া আল কুরআন গবেষনা পরিষদ ওসমানীনগর-বালাগঞ্জ উপজেলার সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা ছরওয়ারে জাহান, উপদেষ্ঠা সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুল মতিন চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক মাওলানা ছাদিকুর রহমান শিবলী, আলীগ নেতা আব্দাল মিয়া, হাজী আজির উদ্দিন, হাজী সোনাহর আলী, হাজী ধন মিয়া,  মাওলানা আব্দুল মতিন গজনভী, মাওলানা আছকর আলী, অধ্যক্ষ মাওলানা শহীদ আহমদ বোগদাদী, মাআব্দুশ শুকুর জিহাদী, মাওলানা মনজুর আহমদ, মাওলানা হুমায়ুনুর রহমান লেখন, খসরু মিয়া, শাহিদুর রহমান চৌধুরী, হাজী পংকি মিয়া, মাওলানা ইউনুছ আলী, মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মোবারক, হাফিজ জহির উদ্দিন চৌধুরী, আব্দুল মতিন, মাওঃ আমীনুল ইসলাম, হাফিজ আজাদ আলী, হাফিজ তৌরিছ আলী, সুলতান আহমদ, জোবায়ের আহমদ রাজু, ছালেহ আহমদ, হাফিজ আব্দুস সালাম, হাফিজ আনোয়ার হোসেন, ইমন আহমদ, আতিকুর রহমান প্রমূখ। এছাড়া আনজুমানে আল ইসলাহ ও তালামীযে ইসলামিয়ার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
র‌্যালী শেষে পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ মাওলানা ছরওয়ারে জাহানের সভাপতিত্বে ও মাওলানা হুমায়নুর রহমান লেখনের পরিচালনায় আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।  এ সময় বক্তারা বলেন, সমাজের সর্বস্তরে শান্তি প্রতিষ্ঠায় মহানবীর মহান আদর্শের বিকল্প নেই। আজ মহানবীর আদর্শ থেকে দূরে থাকার কারণে নানা সময়ে নেমে আসছে মহা সমস্যা ও বিপদ। নির্যাতিত মুসলিম উম্মাহ তথা আরাকানের মুসলমানদের উপর মায়ানমারের রাষ্ট্রীয় ও বৌদ্ধদের গণগত্যা বন্ধের আহবান জানান।