তিনজনকে দায়ী করে সুইসাইড নোট, যুবকের লাশ উদ্ধার

../news_img/attohotaa.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক ::  তিনজনকে দায়ী করে লেখা সুইসাইড নোটসহ রনি শাহ (২৮) নামে এক যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

সোমবার সকালে লালপুর উপজেলার নবীনগর এলাকায় একটি বাঁশঝাড় থেকে রনির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত রনি শাহ উপজেলার নবীনগর এলাকার সাজদার শাহের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, বড় বউ নাজমা বেগম, ছোট বউ যমুনা বেগম ও ২ সন্তানসহ নবীনগর গ্রামে বাস করতেন রনি শাহ।

সোমবার সকালে বাড়িসংলগ্ন বাঁশঝাড়ের ভেতরে রনির মৃতদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। 

স্থানীয় ইউপি সদস্য তরিকুল ইসলাম জানান, রনির লাশ বাড়ির পাশে বাঁশঝাড়ের ভেতর পড়েছিল। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা বোঝা যাচ্ছে না। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে গেছে।

সুইসাইড নোটের ব্যাপারে তিনি জানান, আমার মনে হয় লেখাটি রনির হাতের নয়।

এ ব্যাপারে লালপুর থানার এসআই সুকমল দেবনাথ জানান, সুইসাইড নোটে রবিউল, রুবেল ও ছোট বউ যমুনাকে দায়ী করা হয়েছে। বড় বউ নাজমাকে অনুরোধ করা হয়েছে সন্তানদের দেখাশোনার জন্য।

তবে স্থানীয়দের মধ্যে অনেকেই এ লেখা রনির নয় বলে দাবি করেছেন। নিহতের মরদেহের কোথাও কোনো জখমের চিহ্ন নেই।

তবে নিচের ঠোঁটে সামান্য জখম আছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে নিশ্চিত বলা যাবে এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা।