ম্যানচেস্টারে আগুন-পানির যুদ্ধ

../news_img/57549 mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা পথে এগোতে রোববার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড এবং ম্যানচেস্টার সিটি একে অপরকে প্রতিহত করতে তুষার এবং মাইনাস তাপমাত্রার সঙ্গেও যুদ্ধ করতে হবে।

উত্তর-পশ্চিম ইংল্যান্ডের শহর ম্যানচেস্টারের আবহওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ম্যাচ শুরু সময় সেখানে তাপমাত্রা মাইনাস ১ ডিগ্রী সেলসিয়াস থাকবে। তবে আবহওয়া যাই বলুক, দুই নগরপ্রতিদ্বন্দ্বীতার উত্তাপ উষ্ণতা ছড়াবেই। ফলে খেলা বরফে হলেও তাপ থাকবে আগুনের। মোট কথা আকাশী নীল ও রেড ডেভিলদের লড়াইটা হবে আগুন-পানির।

যদিও ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে মাটি থেকে গরম বের হওয়ার কারণে অনেকটা সুবিধা পাওয়া যায়। তবে মাটির বাইরের বরফের অবস্থা সম্পর্কে উদ্বেগ রয়েছে। আর সেজন্য উত্তাপ বাড়াতে ৭৬,০০০ ভক্তকে আগে আগেই মাঠে পৌঁছানোর জন্য উৎসাহিত করা হয়েছে।

ম্যানইউ-ম্যানসিটির ম্যানচেস্টার ডার্বির উত্তাপ আর বাড়িয়েছেন দুই কোচও। যার এক জনের অস্ত্র হার না মানা মানসিকতা। ভাল খেলার চেয়েও তার কাছে গুরুত্বপূর্ণ হল, ম্যাচ জিতে মাঠ ছাড়া। তিনি হোসে মরিনহো। আরেক জনের হাতিয়ার সুন্দর ফুটবল। শত সমলোচনাতেও নিজের ফুটবল দর্শন বদলাতে রাজি নন। তিনি, পেপ গার্দিওলা।

তাই ম্যানচেস্টার ডার্বিতে আকর্ষণের কেন্দ্রে বিশ্ব ফুটবলের অন্যতম সেরা দুই মস্তিস্কের দ্বৈরথও। মরিনহো বনাম পেপ মানেই ধুন্ধুমার লড়াই, উত্তেজনা। ম্যানচেস্টারের ১৭৫তম ডার্বির মত দুই মহারথী কোচের দ্বৈরথও নতুন নয়। এখনও পর্যন্ত ২০বার মুখোমুখি হয়েছেন তারা।

এগিয়ে অবশ্য ম্যানসিটি ম্যানেজারই। গার্দিওলা জিতেছেন দশবার। মরিনহো চারবার। ড্র ছয়বার। তবে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে এবারের স্কোর লাইনটা কী হয় সেদিকেই তাকিয়ে ফুটবল বিশ্ব।