হেলাল আহমদ চৌধুরী’র স্মৃতি

../news_img/58040 mmm.jpg

আবুল কালাম আজাদ ছোটন :: ভাবতে অবাক লাগে আজ তুমি আমাদের মাঝে নেই তোমার শূন্যতা কত যে অনুভূতির সে টি সবার হ্রদয়ে তোমার মিষ্টি মাখা হাসি উপস্থিতি কোথায় হারিয়ে গেল আমার সকালের ঘুম ভাঙানোর রীতি ছিল তুমার ফোন কল ।


তুমাকে দেখেছি কম’ময় জীবনে কত স্বতঃস্ফূর্ত কষ্ট বেদনায় , সমাজকে নিয়ে , নিজ এলাকার উন্নয়ন কত স্বপ্ন বুনতে মনে । নিজের জন্য যত ব্যস্ত তার অধিক ছিল টান সমাজের তরে, এলাকার উন্নয়ন সভা সমাবেশ , তুমার উপস্তি সব’ প্রথম নবীগঞ্জের উন্নয়নে কোন কাজ আসলে তুমি নিতে দায়িত্ব হাত পেতে ।  তোমায় দেখেছি সেই বাল্য বয়সে , যখন আসতে ফুফুর বাড়ীতে, আমার বড় করে ভয় দেখানো চোখ রাঙানো, তুমি দৌড়ে পালাতে ।

বিলাত এসে প্রথম তোমায় দেখা , কত হাসি মুখে বরণ করে নিলে তুমি মোরে । নবীগঞ্জ উন্নয়নে আমার প্রতিটি উদ্যোগে শক্ত হাতে দাড়িয়ে ছায়ার মত ছিলে ,এখন ভাবতে অবাক লাগে , এত বিশ্বাস ছিল তুমার আমার উপর , উন্নয়ন কল্পে কোন উদ্যোগ নিলে প্রশ্ন ছারা কাঁধে নিতে তুলে।

যুক্তরাজ্য নবীগঞ্জ এডুকেশন ট্রাস্ট , গ্রেটার লন্ডন নবীগঞ্জ ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন , নবীগঞ্জ উপজেলা উন্নয়ন সংস্থা প্রতিটি সংগঠনে ছিলে তুমি । তোমার দেয়া অর্থায়নে নবীগঞ্জ মুক্তি যুদ্ধের স্মৃতিচারণ প্রদর্শনী হচ্ছে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনবরত ।

গত বন্যায় নিজ এলাকায় , গরীব দুখী মানুষের সাহায্য সংগৃহীত ত্রাণ নিয়ে গেলে সাথীদের সাথে জন্মভূমি নবীগঞ্জে , বিমান থেকে নেমে মায়ের মুখ দশ’ন করে , ঘণ্টা কয়েক পর তুমি চলে গেলে না ফেরার দেশে ।

তোমার তরে দোয়া করি হে আল্লাহ রাব্বুল আলামিন তুমি জান্নাতুল ফেরদৌস নছীব কর আমার হেলাল আহমদ চাচা কে ।