জঙ্গিবাদ রুখতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে পুলিশঃ প্রধানমন্ত্রী

../news_img/58281mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::বাংলাদেশের মাটিতে জঙ্গি, সন্ত্রাসী ও যুদ্ধাপরাধীদের জায়গা হবে না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন: ইসলাম শান্তির ধর্ম। কিন্তু এই শান্তির ধর্মের বিভিন্ন বিষয়কে অপব্যাখ্যা করে অশান্তি এবং জঙ্গিবাদী কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। সকলকে ঐক্যবদ্ধ করে আমরা সন্ত্রাসী কার্যক্রম রুখবো। বাংলাদেশ পুলিশ এক্ষেত্রে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। প্রধানমন্ত্রী বলেন: সন্তানরা কোথায় যাচ্ছে, কী করছে সেই দিকে অভিভাবকদের খেয়াল রাখতে হবে। শিক্ষার্থীরা কোথায় যাচ্ছে, অনুপস্থিত থাকলে প্রতিষ্ঠানকে খোঁজ-খবর রাখতে হবে।

পুলিশ সপ্তাহ-২০১৮ এর উদ্বোধন উপলক্ষে রাজধানীর রাজারবাগে মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইন্সে বার্ষিক প্যারেড পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এসময় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এবং পুলিশের আইজি শহীদুল হক উপস্থিত ছিলেন।

২০১৭ সালে বাংলাদেশ পুলিশের যে সকল সদস্য কর্মক্ষেত্রে সাহসিকতা এবং বীরত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন তাদেরকে ‘বাংলাদেশ পুলিশ পদক (সাহসিকতা)’, ‘রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (সাহসিকতা), ‘বাংলাদেশ পুলিশ পদক (সেবা)’ এবং ‘রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (সেবা)’ প্রদান করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অপরাধ দমনে সাহসিকতা, সেবা এবং কর্মদক্ষতার স্বীকৃতি হিসেবে ১৮২ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল-বিপিএম ও প্রেসিডেন্ট পুলিশ মডেল-পিপিএম দেওয়া হয়।

দেশ ও জাতির জন্য কাজে আরও দক্ষতার সঙ্গে পালনে উদ্বুদ্ধ করতে এই পদক প্রদান করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া গণতন্ত্র রক্ষা ও প্রতিষ্ঠায় পুলিশের ভূমিকা এবং জনগণের প্রতি জবাবাদিহীতার কথা উল্লেখ করেন তিনি।

‘জঙ্গি ও মাদক প্রতিকার, পুলিশ সপ্তাহের অঙ্গীকার’ শ্লোগানে শুরু হওয়া পুলিশ সপ্তাহ চলবে আগামী পাঁচদিন।