ভুয়া এনআইডি সূত্রে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান

../news_img/58212 mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: রাজধানীর পশ্চিম নাখালপাড়ায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে যে বাড়িটিতে অভিযান চালাচ্ছে র‌্যাব, তা ভুয়া এনআইডি দেখিয়ে ভাড়া নেয়া হয়েছিল বলে জানিয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। মেস করার কথা বলে জাহিদ ও সজীব নামে দুই তরুণ বাড়িটি ভাড়া নিয়েছিল বলে জানিয়েছে র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ।

শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের সামনে এসব তথ্য জানান র‌্যাব প্রধান।

বেনজীর আহমেদ জানান, মেস ভাড়া নেয়ার কথা বলে গত ৪ জানুয়ারি পশ্চিম নাখালপাড়া (ছাপড়া মসজিদের পাছে) সাব্বির রহমানের ১৩/১ রুবি ভিলা ভাড়া নেয় জাহিদ ও সজীব নামে দুই তরুণ। বাড়িটি ছয় তলা। সবার ওপরের তলায় একটি ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়েছিল তারা। বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক রুবেল তাদের বাড়িটি ভাড়া দেন। ভাড়া নেয়ার সময় তারা দুটি এনআইডি কার্ডের ফটোকপি দেয়। তেজগাঁও থাকায় জমা দেয়ার পর এনআইডি কার্ড দুটি দেখে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সন্দেহ হয়।

ওই তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে বাড়িটিতে অভিযান চালাতে গেলে জঙ্গিরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গ্রেনেড ছুঁড়ে মারে। ওই সময় র‌্যাবও পাল্টা গুলি করলে তিন জঙ্গি নিহত হয়। আহত হয় র‌্যাবের দুই সদস্যও।

পরে আস্তানাটি থেকে দুটি ইম্প্রোভাইজড এক্সপ্লোসিভ ডিভাইস (আইইডি), বিস্ফোরক জেল ও একটি পিস্তল পাওয়ার কথা জানায় র‌্যাব প্রধান।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাড়ির তত্ত্বাবধায়ক রুবেল ও মালিক সাব্বির রহমান আটক করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

বাড়িটির পাশে তুহিন নামে একজনের রিকশার গ্যারেজে আছে। সেখানে ৫০ জনের মতো রিকশাচালক রাতে ঘুমান। তাদের একজন শামীম মিয়া। সকালে তার সঙ্গে কথা হয় । তিনি বলেন, ‘অনেক গোলাগুলির শব্দে রাইতে ঘুম ভাইঙা যায়। মনে করছি, ২১ ফেব্রুয়ারির লাইগ্যা ২১ বার বুঝি গুলি হইতাছে। কিন্তু অনেক গোলাগুলির শব্দ শুইন্যা উঁকি মাইরে বাইরে তাকাই। দেহি প্রচুর র‌্যাব-পুলিশ দাঁড়ায়া আছে।’

জঙ্গি আস্তানাটির চারপাশ ঘিরে রেখেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। ওই এলাকা দিয়ে কাউকে যেতে দেয়া হচ্ছে না। এখন র‍্যাবের বোমা নিষ্ক্রিয়করণ দল (বম্ব ডিসপোজাল ইউনিট) বাড়িটিতে ঢুকে বিস্ফোরক নিষ্ক্রিয়ের কাজ করছে।