পোশাক শ্রমিকদের জন্য নতুন মজুরি বোর্ড

../news_img/58419mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক::তৈরি পোশাকশিল্পের শ্রমিক-কর্মচারীদের মজুরি বাড়ানোর জন্য সরকার ন্যূনতম মজুরি বোর্ড গঠন করেছে। বোর্ডকে আগামী ছয় মাসের মধ্যে শ্রমিকদের মজুরি নির্ধারণ করে সুপারিশ দিতে বলা হয়েছে।

শ্রম ও কর্মসংস্থানবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মজিবুল হক চুন্নু বলেছেন, তৈরি পোশাকশিল্প শ্রমিকদের জন্যে সরকার মজুরি বোর্ড ঘোষণা করেছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, এই বোর্ড বাজারমূল্য ও অন্যান্য জিনিসপত্রের দর যাচাই করে আগামী ৬ মাসের মধ্যে শ্রমিকদের বেতন নির্ধারণ করে সুপারিশ করবে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে নিম্নতম মজুরি নির্ধারণ করে তা ঘোষণা করা হবে।

রোববার (১৪ জানুয়ারি) শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে তিনি এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, নতুন মজুরি বোর্ডে মালিকপক্ষের প্রতিনিধি থাকবেন সিদ্দিকুর রহমান এবং শ্রমিকপক্ষের প্রতিনিধি হিসেবে থাকবেন শামসুন্নাহার ভূইয়া। বোর্ডের স্থায়ী সদস্য থাকছেন চেয়ারম্যান সাবেক জেলা জজ সৈয়দ আমিনুল ইসলাম।

এছাড়া সদস্যদের মধ্যে মালিকপক্ষের প্রতিনিধি হিসেবে থাকছেন কাজী সাইফুদ্দীন আহমদ, শ্রমিকপক্ষের প্রতিনিধি থাকছেন জাতীয় শ্রমিক লীগের কার্যকরী সভাপতি ফজলুল হক মন্টু। কমিটির নিরপেক্ষ সদস্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. কামাল উদ্দিন।

উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১৩ সালের ১ ডিসেম্বরে তৈরি পোশাকশিল্পে নিম্নতম মজুরি ৫ হাজার ৩০০ কার্যকর হয়। এর মধ্যে মূল মজুরি ৩ হাজার টাকা, বাড়ি ভাড়া ১ হাজার ২০০ টাকা এবং চিকিৎসা, যাতায়াত ও খাদ্য ভাতা ১ হাজার ১০০ টাকা।
একই বছরের ডিসেম্বরের আগে পোশাক শ্রমিকদের নিম্নতম মজুরি ছিল ৩ হাজার টাকা। একেকটি মজুরি কাঠামো পাঁচ বছরের জন্য গঠন করা হয়।