বিমানের সিট খালি যায়, অথচ টিকিট নেই!

../news_img/58342 mmm.jpg

মৃদুভাষণ ডেস্ক :: বিমানে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক রুটে সিট খালি থাকে, অথচ বুকিং দেয়ার সময় সিট পাওয়া যায় না। কীভাবে এ ধরনের অনিয়ম ঘটে চলেছে, এসবের মানে কী? এমন প্রশ্ন উত্থাপিত হয়েছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে।
 

এছাড়া বিমানের ও বিমানবন্দরের নানা ধরনের দুর্নীতি ও অনিয়মের খবরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে কমিটি।

রোববার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এসব প্রশ্ন উত্থাপিত হয় বলে জানা গেছে। এছাড়া বিমানযাত্রা বিলম্বিত হওয়ার বিষয়টি যাত্রীকে অবহিত করা হয় না বলেও অভিযোগ করা হয়।

এ বিষয়ে বিমানকে কার্যকর ব্যবস্থা গ্রহণের সুপারিশ করা হয়েছে। বৈঠকে বলা হয়েছে, হোটেল শৈবাল পিপিপিতে ছেড়ে দেয়া হলে, জমির মালিকানা যাতে পরিবর্তন না হয় তা নিশ্চিত করা প্রয়োজন। সেজন্য পর্যটন কর্পোরেশনের চুক্তিতে কঠিন শর্তাবলি থাকবে যা পালনে লিজগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠান বাধ্য থাকে, প্রয়োজনে জরিমানার বিধান রাখাসহ অন্যান্য দেশের পিপিপির শর্তাবলি পর্যালোচনার সুপারিশ করা হয়।

কমিটি সভাপতি মুহাম্মদ ফারুক খানের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী একেএম শাহ্জাহান কামাল, মো. আলী আশরাফ, তানভীর ইমাম, কামরুল আশরাফ খান, মো. আফতাব উদ্দীন সরকার, রওশন আরা মান্নান এবং বেগম সাবিহা নাহার উপস্থিত ছিলেন।